DMCA.com Protection Status
ADS

জিয়াউর রহমান উন্নয়ন ও উৎপাদনের রাজনীতির প্রবর্তন করেছিলেন

BNPT copy

দৈনিক প্রথম বাংলাদেশ প্রতিবেদনঃ বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় অন্যায়ভাবে কিছু করার চেষ্টা করা হলে কানাডা বিএনপি প্রবাসে বসে থাকবে না বলে আওয়ামী সরকারের প্রতি হুসিয়ারী উচ্চারন করেছেন কানাডা বিএনপি, টরেন্টো নেতৃবৃন্দ।

শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৩৫তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উদ্যাপন উপলক্ষে ২৯ মে ২০১৬ রবিবার সন্ধ্যা ৭-৩০ মিঃ এ টরণ্টোস্থ “রয়েল কানাডিয়ান লিজিয়ন হলে” জিয়া মেমোরিয়াল ডে অবজারভেন্স কমিটি অব কানাডার আহবায়ক বিশিষ্ট সিনিয়র সাংবাদিক ও গবেষক রেজাউল করিম তালুকদারের সভাপতিত্বে এক আলোচনা সভা, সেমিনার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিশিষ্ঠ লেখক, গবেষক, কলামিস্ট ক্যাপঃ (অবঃ) শহীদ ইসলাম। 

মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনের পর আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন বিশিষ্ট লেখক ও গবেষক শামসুল মুকতাদির, বিশিষ্ট লেখক, গবেষক ও অধ্যাপক ড. সিরাজুল হক চৌধুরী, বাংলাদেশ ফোরাম অব কানাডার সাধারণ সম্পাদক মাশরুল হোসেন রিপন, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. এনামুল্লাহ, সাবেক ছাত্রনেতা শাহরিয়ার আহমেদ সেলিম প্রমুখ।

সেমিনারের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলওয়াত করেন রোকনুজ্জামান অতঃপর শহীদ জিয়াউর রহমানের প্রতি সম্মান প্রর্দশনের জন্য দাড়িয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। সেমিনারের এক পর্যায়ে ঢাকা থেকে প্রেরিত বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর-এর প্রেরিত বার্তা হুবহু পড়ে শুনান রাসেল-আল হাবিব এবং বিএনপি চেয়ারপারসন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার প্রেরিত “বাণী” হুবহুু উপস্থাপন করেন কানাডা মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক রেহেনা আখতার।

BNPT2আলোচনা সভা ও সেমিনারের বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় “ফোবানা”এর চেয়ারম্যান ও কানাডা বিএনপির সিনিয়র নেতা এজাজ আখতার তৌফিক বলেন, বর্তমান শাসকদল আওয়ামীলীগ বিএনপিকে নেতৃত্বশুণ্য করতেই বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে একের পর এক মিথ্যা মামলা দিচ্ছে। তারা হয়তো ভুলে গেছেন মামলা দিয়ে জেলে নিয়ে বিএনপির নেতৃত্বকে দাবিয়ে রাখা যাবে না।

বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় জিয়া পরিষদ অব কানাডার সভাপতি নবী হোসেন বলেন, জিয়াউর রহমান উন্নয়ন ও উৎপাদনের রাজনীতির প্রবর্তন করেছিলেন। মিল-কারখানায় উৎপাদন বাড়াতে তিন-শিফটে কাজ চালু করেছিলেন। বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় কানাডা বিএনপির সিনিয়র রাজনীতিক ও সাবেক ছাত্রনেতা এজাজ আহমেদ খান বলেন, শহীদ জিয়া বেকার জনগোষ্ঠীকে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষ করে তুলে বিদেশের শ্রম বাজারে পাঠিয়েছিলেন। আজকের বাংলাদেশ যে রেমিটেন্সের উপর টিকে আছে তার সূচনা হয়েছিল শহীদ জিয়ার আমলে।

বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় কানাডা বিএনপির অন্যতম নেতা ফারুক হাওলাদার বলেন, ৩৬ হাজার নতুন শিল্প কারখানা শহীদ জিয়ার আমলে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। তিনি কানাডা বিএনপিকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহবান জানান।

বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় কানাডা মহিলা দলের সভাপতি নাজমা হক বলেন, ইতিহাসের সত্য এটাই যে, যেখানে আওয়ামীলীগের ব্যর্থতা ও সীমাবদ্ধতা, সেখানেই রাষ্ট্রনায়ক হিসাবে শহীদ জিয়া ছিলেন সফল। সভাপতির বক্তব্যে রেজাউল করিম তালুকদার বলেন, জিয়ার আদর্শের অনুসারীদেরকে ঐক্যবদ্ধ করে এই দুঃশাসনের বিরুদ্ধে গন অভ্যুত্থান গড়ে তোলার আহবান জানান।

সেমিনারের দ্বিতীয় পর্বে দোয়া পরিচালনা করেন ক্যাপঃ (অবঃ) শহীদ ইসলাম। সমগ্র অনুষ্ঠানটি সার্বিকভাবে পরিচালনা করেন “জিয়া মেমোরিয়াল ডে অবজারভেন্স কমিটি অব কানাডা”-এর সদস্য সচিব মুজিবর রহমান।

Share this post

scroll to top
error: Content is protected !!