DMCA.com Protection Status
ADS

বঙ্গবন্ধুর খুনিদের ব্যাপারে দ্বৈতনীতি অনুসরণ করছে যুক্তরাষ্ট্র-কানাডা

ihb4u71l-e1405868089660বঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে ফেরত পাঠাতে যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডা দ্বৈতনীতি অনুসরণ করছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও এলজিআরডি মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম।

সৈয়দ আশরাফ ওই দুই দেশের নীতির সমালোচনা করে বলেন, ‘খুনীদের দেশে ফেরত আনার ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডা দ্বৈতনীতি অনুসরণ করছে। তারা সব-সময় মানবাধিকারসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বড় বড় কথা বলে। যুক্তরাষ্ট্রে প্রতি মাসে মাসে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হচ্ছে।’

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর খুনিদের আমরা দেশে ফিরিয়ে আনার উদ্যোগ নিয়েছি। খুনীদের ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া অনেক সময় ধীর গতিতে চলে। তবে আমরা মনে করি সময়মত এদের দেশে ফিরিয়ে আনতে পারব এবং রায় বাস্তবায়ন হবে।’

শুক্রবার বঙ্গবন্ধুর ৩৯-তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসে টুঙ্গীপাড়ায় মাজারে এ শ্রদ্ধা নিবেদনকালে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

এ প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম বলেন, ‘কর্নেল রশিদ যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করছেন। আমরা তাকে আনার চেষ্টা করছি। আমাদের কাছে তাকে হস্তান্তর করা হচ্ছে। কর্নেল নূর থাকেন কানাডায়। তারা খুনীদের শিগগিরই হস্তান্তর করছে।

এ দুই নেতা ছাড়াও বঙ্গবন্ধুর মাজারে শ্রদ্ধা নিবেদনকালে উপস্থিত ছিলেন- জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরিন শারমিন চৌধুরী, শিল্পমন্ত্রী আমীর হোসেন আমু এমপি, এফবিসিসিআই সভাপতি কাজী আকরাম উদ্দিন আহম্মদ, কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী এমপি, নৌমন্ত্রী শাজাহান খান এমপি, কর্মসংস্থান ও শ্রম প্রতিমন্ত্রী মুন্নুজান সুফিয়ান, মুহাম্মদ ফারুক খান এমপি, প্রধানমন্ত্রীর চাচা শেখ কবির হোসেন, অ্যাডভোকেট উম্মে রাজিয়া কাজল, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ, যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ আতিয়ার রহমান দীপুসহ স্থানীয় নেতা-কর্মীরা।

মন্ত্রিপরিষদ সদস্য এবং দলীয় নেতাকর্মীরা জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ ও গোপালগঞ্জ জেলা প্রশাসন আয়োজিত মিলাদ ও  দোয়া মাহফিলে অংশ নেন।

Share this post

scroll to top
error: Content is protected !!