DMCA.com Protection Status
ADS

তথাকথিত বিরোধী দলের নেত্রী রওশন এরশাদঃ থেকেও যেনো নেই!

images13-300x164রওশন এরশাদের নেতৃত্বে বিরোধী দল কাজে কতটুকু সফল হবে তা নিয়ে সংশয় ছিল অনেকেরই। এবার কেবল কাজে নয় আনুষ্ঠানিকতায়ও বিরোধী দলীয় প্রধান হিসেবে রওশন এরশাদের ভূমিকা প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে।

রমজান মাসে রাজনীতিবিদ ও সংসদের কেন্দ্রীয় ব্যক্তি হিসেবে বিরোধী দলীয় নেত্রীর ইফতার পার্টি আয়োজনের রেওয়াজ দীর্ঘদিন ধরেই চালু আছে। সে রেওয়াজ রক্ষা করতে ব্যর্থ হয়েছেন বর্তমান সংসদের বিরোধী দলীয় নেত্রী। এমনকি নিজ দলের সভাপতি হুসেইন মোহাম্মদ এরশাদের আয়োজিত ইফতার পার্টিতেও যাননি তিনি। তবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিএনপি সভানেত্রী খালেদা জিয়া ইফতার পার্টি আয়োজনের রেওয়াজ পালন করেছেন পুরোদমে। ইফতার পার্টি ছাড়াও বিরোধী দলের প্রধান হিসেবে বিভিন্ন রাষ্ট্রীয় ও রাজনৈতিক আচার-অনুষ্ঠান পালন থেকে দূরে থাকছেন রওশন এরশাদ।

রাজনীতিবিদদের ইফতার পার্টি ধর্মীয় আচারের বাইরেও রাজনৈতিকভাবে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। রাজনৈতিক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা ইফতার পার্টিকে কেন্দ্র করে নিজেদের সাংগঠনিক কর্মকাণ্ড সুসংহত করার চেষ্টা করেন ইফতার পার্টির মতো অনুষ্ঠানের মাধ্যমে। একারণেই প্রতি বছর রমজান মাসে সরকার দল ও বিরোধী দলের ইফতার পার্টির রেওয়াজ সর্বজনবিদিত। বিরোধী দল না হওয়া সত্ত্বেও বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াও এই চর্চা অব্যাহত রেখেছেন। কিন্তু দশম সংসদের বিরোধী দলীয় নেত্রী হওয়া সত্ত্বেও এক্ষেত্রে একেবারেই নিশ্চুপ রওশন এরশাদ। রমজান মাসে ইফতার পার্টি কিংবা এ ধরণের অনুষ্ঠান আয়োজনের উদ্যোগ থেকে দূরে থাকছেন তিনি।

বিরোধী দল হিসেবে সংসদেও সরব নন রওশন এরশাদ। সমালোচকরা প্রায়ই বলে থাকেন, ঠিক যেসব কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে তার ‘বিরোধী দলীয় নেত্রী’ হয়ে উঠার কথা, সেসব কর্মকান্ডের কিছুই করছেন না তিনি। এক্ষেত্রে নিজের পদমর্যাদা নিজেই ক্ষুণ্ণ করছেন তিনি। ফলে সংসদে বিরোধী দলের কেবল কায়া থাকছে, কিন্তু প্রাণটুকু থাকছে না। এর প্রভাব পড়ছে দেশের সামগ্রিক পরিস্থিতিতে।

সর্বশেষ বাজেট অধিবেশনে সাম্প্রতিক সময়ে আলোচিত জনগুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো নিয়ে কথা বলেছিলেন রওশন এরশাদ। সরকারের মৃদুমন্দ সমালোচনাও করেছিলেন তিনি। এর বাইরে রাজনীতির অঙ্গনের ঘটনাচক্র হয় আওয়ামী লীগ কিংবা বিএনপিকে কেন্দ্র করেই আবর্তিত হচ্ছে। এমনকি আগাম নির্বাচনকে কেন্দ্র করে চলমান রাজনৈতিক দ্বন্দ্বেও নূন্যতম প্রভাব নাই রওশন এরশাদের। এছাড়া, সমুদ্র সীমার রায়ের মতো রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুতেও সম্পূর্ণ নিরবতা বজায় রেখেছিলেন রওশন এরশাদ। এভাবে, রাজনীতি ও আনুষ্ঠানিকতা দুই জগতেই নিশ্চুপ থাকছেন বর্তমান সংসদের বিরোধী দলীয় নেত্রী।

Share this post

scroll to top
error: Content is protected !!