DMCA.com Protection Status
ADS

রওশন এরশাদের জন্য ‘যমুনা’ দাবি, মন্ত্রীর না

image_85408_0সংসদের বিরোধীদলীয় নেত্রী বেগম রওশন এরশাদের জন্য বরাদ্দকৃত সরকারি বাস ভবনটি নিম্নমানের উল্লেখ করে হেয়ার রোডের স্টেট হাউজ (যমুনা) বরাদ্দের জন্য জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য একেএম মাইদুল ইসলাম দাবি জানালে তা নাকচ করে দেন গণপূর্তমন্ত্রী।





মঙ্গলবার জাতীয় সংসদের টেবিলে উত্থাপিত মাইদুল ইসলামের এক লিখিত প্রশ্নের উত্তরে মন্ত্রী তা নাকচ করে দেন।


মাইদুল ইসলাম তার প্রশ্নে বলেন, ‘রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, স্পিকার ও প্রধান বিচারপতির জন্য আবাসিক ভবন নির্দিষ্ট করা আছে। কিন্তু বিরোধীদলীয় নেতার জন্য যে আবাসিক ভবন রয়েছে তা অত্যন্ত নিম্নমানের। বিরোধীদলীয় নেতার উপর অর্পিত দায়িত্ব সুন্দরভাবে পালনের জন্য একটি ভালো আবাসিক ভবন স্থায়ীভাবে বরাদ্দ দেয়া প্রয়োজন। যখন যে বিরোধীদলীয় নেতা হবেন তিনি সেখানে থাকবেন। এজন্য হেয়ার রোডের অব্যবহৃত স্টেট হাউজ (যমুনা) ভবনটি বরাদ্দ দেয়া যায় কি না?’


এর উত্তরে গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘বিরোধীদলীয় নেতার জন্য ২৯ মিন্টো রোড বাংলোটি নির্দিষ্ট করা আছে। হেয়ার রোডের স্টেট হাউজ (যমুনা) ভবনটি রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন হিসেবে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে ব্যবহৃত হচ্ছে। তাই এ ভবনটি বিরোধীদলীয় নেতার জন্য বরাদ্দ দেয়া সম্ভব নয়।’


দিদারুল আলমের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘সরকারি বিভিন্ন সংস্থার পরিকল্পিত নগর গড়ার দায়িত্ব রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক)।’


মন্ত্রী বলেন, ‘একটি পরিকল্পিত নগরীর জন্য ২৫ শতাংশ রাস্তা থাকা প্রয়োজন কিন্তু আমাদের আছে মাত্র ৮ শতাংশ। এছাড়া শহরের প্রাইমারি রাস্তা কম এবং রাস্তার হাইরেসি নেই, যা ঢাকা শহরের যানজটের অন্যতম কারণ।’


হাজী মো. সেলিমের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘ডি এবং তদূর্ধ্ব শ্রেণীর সরকারি বাসা সাব-লেট/ বাণিজ্যিক কাজে ব্যবহারের অভিযোগ প্রমাণিত হলে বাসার বরদ্দ বাতিল করা হবে। বরাদ্দ বাতিল করে অন্য সরকারি কর্মকর্তাদের নামে দেয়ার এখতিয়ার সরকারি আবাসন পরিদপ্তরের আছে। একইভাবে ‘এ’  ‘বি’ ও ‘সি’ শ্রেণীর বাসাগুলোর বিরুদ্ধে একই অভিযোগ প্রমাণিত হলে বাসা বরাদ্দ বাতিল করাসহ বরাদ্দ প্রাপকের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

Share this post

scroll to top
error: Content is protected !!