DMCA.com Protection Status
ADS

শেখ মুজিব অখন্ড পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হতে চেয়েছিলেনঃ দেশনায়ক তারেক রহমান



ক্যাপ্টেন(অবঃ)মারুফ রাজুঃ  বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি)’র সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান দেশনায়ক তারেক রহমান বলেছেন, শেখ মুজিবুর রহমানের রাজনৈতিক ব্যর্থতার কারণে জাতিকে অনেক মূল্য দিতে হয়েছে। ৭ই মার্চ শেখ মুজিবুর রহমান কোনো স্বাধীনতার ঘোষণাই দেননি। তার নেতৃত্বের ব্যর্থতায় ২৫ মার্চ ১৯৭১ সালে জাতির সূর্যসন্তানদের হারাতে হয়েছে।

আর শেখ হাসিনার রাজনৈতিক ব্যর্থতার কারণে ২৫ ফেব্রুয়ারি জাতিকে আমাদের সেনাবাহিনীর অনেক চৌকস অফিসার কে হারাতে হয়েছে।

গতকাল ২৭ মার্চ সোমবার পূর্ব লন্ডনের রয়েল রিজেন্সি হলে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বি,এন,পি) যুক্তরাজ্য আয়োজিত বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে ‘জিয়াউর রমান বাংলাদেশের প্রথম প্রেসিডেন্ট ও স্বাধীনতার ঘোষক’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথাগুলো বলেন।

এই সভায় সভাপতিত্ব করেন যুক্তরাজ্য বিএনপি‘র সভাপতি এম এ মালিক। সভা পরিচালনা করেন যুক্তরাজ্য বিএনপি‘র সাধারণ সম্পাদক কয়সর আহমেদ।

 দেশনায়ক তারেক রহমান তার মুল্যবান বক্তব্যে নিম্নলিখিত বিষয়গুলোর উপর তিনি আলোকপাত করেনঃ 

০ শেখ মুজিবের ব্যর্থতায় ২৫ মার্চ গনহত্যা, শেখ হাসিনার ব্যর্থতায় ২৫ ফেব্রুয়ারীর বিডিআর সেনাহত্যা ।

০ ২৫ মার্চের গনহত্যা সম্পর্কে আরো বেশী আলোচনা হওয়া দরকার।

০শেখ মুজিব অখন্ড পাকিস্তানের  প্রধানমন্ত্রী হওয়ার অপেক্ষায় ছিলেন, তাই বাংলাদেশের স্বাধীনতার ঘোষনা তিনি দেননি। 

০জিয়াউর রহমানই বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি এবং স্বাধীনতার ঘোষক ।

০শেখ মুজিব থেকে শেখ হাসিনা এরা কেউ গনতন্ত্রে বিশ্বাস করেনা ।

০জনগণের অর্থ সম্পদ লুটপাট করাই আওয়ামী লীগের রাজনীতি।

 

বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান বলেন, ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চের গনহত্যা সম্পর্কে আরো বেশী আলোচনা হওয়া দরকার। এ সম্পর্কে যত বেশী আলোচনা হবে ততই ইতিহাসের কঠিন সত্য বেরিয়ে আসবে।

তিনি বলেন, শেখ মুিজব ৭ মার্চ কিংবা ২৬ মার্চ কখনোই স্বাধীনতার ঘোষণা দেননি। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার জন্য পাকিস্তান থেকে জেনারেল পিরজাদার ফোনকলের অপেক্ষায় না থেকে স্বাধীনতার ঘোষনা দিলে ২৫ মার্চের গনহত্যা সংঘটিত হতে পারতো না।

তারেক রহমান প্রশ্ন করে বলেন, শেখ মুজিবুর রহমান ২৭ মার্চ ঢাকায় হরতাল ডেকেছিলেন। স্বাধীনতার ঘোষনা দিলে হরতাল ডাকা হলো কেন? কার বিরুদ্ধে?


 সভায় সভাপতিত্ব করেন যুক্তরাজ্য বিএনপি‘র সভাপতি এম এ মালিক। সভা পরিচালনা করেন যুক্তরাজ্য বিএনপি‘র সাধারণ সম্পাদক কয়সর আহমেদ।

দেশনায়ক তারেক রহমান বলেন, ৭ মার্চ রেসকোর্স ময়দানে লাখো স্বাধীনতাকামী মানুষ জড়ো হয়েছিলো। সেদিন স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়ে যুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়লে বাংলাদেশে এত ক্ষয়ক্ষতি হতোনা। কারণ ৭ মার্চ পর্যন্ত তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের লক্ষকোটি স্বাধীনতাকামী জনগনের সামনে সব মিলিয়ে পশ্চিম পাকিস্তানের ১০- ১৫ হাজারের বেশী সেনা-পুলিশ ছিলোনা। তাই, লক্ষ কোটি স্বাধীনতাকামী মানুষের বিপরীতে এত অল্পসংখ্যক সেনা-পুলিশ দাঁড়াতেও পারতো না।

তিনি বলেন, শেখ মুজিবের সিদ্ধান্তহীনতার কারণে ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ ঢাকায় সংঘটিত হয় বর্বরোচিত গনহত্যা।

অপরদিকে ২০০৯ সালে বিডিআরের তৎকালীন ডিজি মেজর জেনারেল শাকিল পিলখানায় বিডিআর বিদ্রোহের কথা তাৎক্ষনিকভাবে জানালেও শেখ হাসিনার সিদ্ধান্তহীনতায় ২৫ ফেব্রুয়ারী ঢাকায় সংঘটিত হয় বর্বরোচিত সেনাহত্যা। 

Share this post

scroll to top
error: Content is protected !!