DMCA.com Protection Status
ADS

বিশ্ব নারী দিবসে বাংলাদেশ বিমানের নারী পরিচালিত ফ্লাইট।

ক্যাপ্টেন(অবঃ)মারুফ রাজুঃ আন্তর্জাতিক নারী দিবসে আজ বিশেষ ফ্লাইট পরিচালনা করবে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স লিমিটেড। বোয়িং ৭৩৭-৮০০ মডেলের একটি উড়োজাহাজে পাইলট, ককপিট ও কেবিন ক্রু সবাই হবেন নারী। বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে নারীরা যে এগিয়ে যাচ্ছে এমন বার্তা দিতেই এমন উদ্যোগ নিয়েছে বিমান।

বিমানের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানান, বিমানের নারী পাইলটরা সবসময় তাদের দক্ষতার পরিচয় দিচ্ছেন। বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো এ দেশের নারীরাও এভিয়েশন খাতে সফল। এ বিষয়টি আমরা তুলে ধরতে চাই। আকাশছোঁয়ার স্বপ্ন দেখলে সেটি যে সফল হতে পারে, এর মাধ্যমে সারা দেশের নারীদের কাছে সেই বার্তাও যাবে।

গতকাল বিমান এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, ৮ই মার্চ (আজ) দুপুর ১:১৫ মিনিটে বিজি- ৬০৩ ফ্লাইটে ঢাকা থেকে সিলেটগামী বিজি ৬০৩ ফ্লাইটে থাকবেন সব নারী ক্রু। উড়োজাহাজ চালাবেন ক্যাপ্টেন তানিয়া রেজা এবং ফার্স্ট অফিসার সারওয়াত সিরাজ অন্তরা। এছাড়া, দু’জন ককপিট ক্রু ও ৬ জন কেবিন ক্রুর দায়িত্বেও থাকছেন নারীরা।

উল্লেখ্য, ক্যাপ্টেন তানিয়া রেজা চিত্রনায়ক ফেরদৌসের সহধর্মিণী। বিমান সূত্রে জানা গেছে, ক্যাপ্টেন তানিয়া রেজা বিমানে যোগ দিয়েছেন ২০০০ সালে। এর আগে এফ ২৮, ডিসি-১০, এয়ারবাস ৩১০, বোয়িং ৭৭৭ উড়োজাহাজ চালিয়েছেন তিনি। এখন পর্যন্ত ৬ হাজার ঘণ্টা উড়োজাহাজ চালানোর অভিজ্ঞতা আছে তার। বর্তমানে তিনি বোয়িং ৭৩৭ উড়োজাহাজের ক্যাপ্টেন হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

এক প্রতিক্রিয়ায় তানিয়া রেজা বলেন, নারীদের এগিয়ে যেতে আগে নিজের ইচ্ছা প্রয়োজন। একই সঙ্গে পরিবারের সহায়তা থাকলে পথচলা মসৃণ হয়। যদিও দেশের এভিয়েশন খাতে নারীরা বাধার সম্মুখীন হয়নি। তারা অনেক আগে থেকেই দক্ষতার সঙ্গে এই খাতে অবদান রাখছেন।

বিশেষ ফ্লাইট প্রসঙ্গে বিমানের মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) শাকিল মেরাজ দৈনিক প্রথম বাংলাদেশকে বলেন, বিমানে ১৪০ জন পাইলট আছেন। এর মধ্যে নারী পাইলট ৯ জন।

এছাড়া বিমানের গ্রাউন্ড সার্ভিস, প্রকৌশলসহ বিভিন্ন বিভাগে নারীরা দক্ষতার পরিচয় দিচ্ছেন। প্রায় সব ধরন ও প্রকৃতির এয়ারক্রাফট চালাতে সক্ষম এই নারী পাইলটরা। তারা বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যাচ্ছেন, এই বার্তা তুলে ধরতেই আমাদের এমন প্রচেষ্টা।

Share this post

scroll to top
error: Content is protected !!