DMCA.com Protection Status
ADS

গাড়ি পোড়ালে মামলা দেবো না তো কি ফুল দেবো ? :শেখ হাসিনা

hasuক্যাপ্টেন(অবঃ)মারুফ রাজুঃ   প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন বিএনপি শুধু ধ্বংস করতে জানে উন্নয়ন করতে জানে না। ২০১৪ সালে বিএনপি-জামায়াত দেশে ১৫৭ জন মানুষকে পুড়িয়ে হত্যা করেছে। শতশত লোক এখনো আহত অবস্থায় দিনাতিপাত করছে।

শনিবার দুপুরে মুন্সীগঞ্জের মাওয়ায় পদ্মা সেতুর পাইলিংয়ের কাজের উদ্বোধন শেষে সেখানে আয়োজিত এক সামবেশে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, বিএনপির নেত্রী জামায়াতকে সঙ্গে নিয়ে ২০১৪ সালে হাজার হাজার গাড়ি পুড়িয়েছে, মানুষ পুড়িয়েছে, রেল পুড়িয়েছে, ভুমি অফিস পুড়িয়েছে, সরকারি কর্মকর্তাকে পুড়িয়ে হত্যা করেছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলা হবে নাতো কি হবে?

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি স্বাধীনতাবিরোধী জামায়াতকে সঙ্গে নিয়ে দেশের উন্নয়ন কাজে বাধাগ্রস্থ করছে। তারা দেশের উন্নয়ন চায় না। উন্নয়ন চায় না বলেই তারা দেশ জুড়ে অরাজকতা তৈরি করেছিলো।’

খালেদা জিয়াকে ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, ‘আপনি কেমন কর্মী তৈরি করেন, যারা গাড়ি পোড়ায়। গাড়ি পোড়ালে মামলা হবে না,  তো কি হবে ? ফুলের মালা দিয়ে বরণ করবো ?’

আওয়ামীলীগ সরকারের আমলেই বাংলাদেশের মানুষের হাতে হাতে মোবাইল ফোন, ইন্টারনেট চলে এসেছে জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ‘আওয়ামীলীগ মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে, আমাদের সরকার বিনা পয়সায় স্কুলের ছেলেমেয়েদের বই দিচ্ছে, ডিগ্রি পর্যন্ত মেয়েদের বিনা পয়সায় পড়ালেখা করার সুযোগ করে দিয়েছে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘দেশের প্রতিটি উপজেলায় আমরা একটি করে স্কুল ও কলেজ নির্মাণ করে দেবো। যাতে করে আমাদের ছেলেমেয়েরা লেখাপড়া শিখে মানুষের মতো মানুষ হতে পারে। তারা যেন উচ্চ শিক্ষিত হয়ে বেকার সমস্যার সমাধান করতে পারে।’

কর্মসংস্থান বাড়ানোই তার সরকারের লক্ষ্য উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমরা বিনা জামানতে ঋণের ব্যবস্থা করে দিয়েছি। আমরা সকলের বেতন-ভাতা বৃদ্ধি করে দিয়েছি।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমরা কথা দিয়েছিলাম পদ্মা সেতু নির্মাণ করবো, কাজ শুরু করে দিলাম। এ সেতু করতে যাদের জমি গেছে বাড়ি গেছে তাদের পুনর্বাসন করে দিয়েছি। এখানে শিল্প কলকারখানা তৈরি হবে, কোনো মানুষ অসুবিধায় থাকবে না।’

Share this post

scroll to top
error: Content is protected !!