DMCA.com Protection Status
ADS

মারমুখি শেখ সেলিম

image_80276_0বিএনপি নেতাদের বক্তব্যের জবাবে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম বলেছেন, ‘আমাকে হুমকি দেয়া হয়েছে। তারা বলেছে, আমাকে নাকি দেখে নেয়া হবে। আমাকে কোথায় দেখে নেবে, কী দেখে নেবে, কখন দেখে নেবে? সময় দেন আমরা প্রস্তুত আছি। গুলিস্তানে আসুন।’ মঙ্গলবার দশম জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশনে পয়েন্ট অব অর্ডারে দাঁড়িয়ে এমন মারমুখি প্রতিক্রিয়া দেন তিনি। তিনি বলেন, ‘আমার কথা ছিল- সন্ত্রাসী, নৈরাজ্যকরী ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে। আমার কথা কোনো দল, সংগঠন বা ব্যক্তির বিরুদ্ধে ছিল না। কিন্তু তারা সন্ত্রাসী, নৈরাজ্যকরী ও জঙ্গিবাদের পক্ষ নিয়েছে। তাদের কথা শুনে মনে হয় ‘ঠাকুর ঘরে কে রে? আমি কলা খাই না’র মতো অবস্থা। তাদের কথায় প্রমাণ হয়েছে তারা সন্ত্রাসী, নৈরাজ্যকরী ও জঙ্গিবাদী দল।’ বিএনপি নেতাদের উদ্দেশে শেখ সেলিম বলেন, ‘তারা কোনো রাজনীতি করে না। তারা প্রতিদিন অফিসে বা প্রেসক্লাবে দোকান খুলে বসে আর মিডিয়াকে ডেকে আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে কুৎসা রটনা করে জনগণকে বিভ্রান্ত করে।’ নাম উল্লেখ না করে বিএনপির কেন্দ্রীয় এক নেতাকে উদ্দেশ করে আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ‘এরা মিডিয়ার নেতা। এরা কেউ কেউ আবার নির্বাচন করে একবারও এমপি হতে পারেননি। তারা আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে কুৎসা রটনা করে ম্যাডামকে (খালেদা জিয়া) খুশি করার জন্য।’ উল্লেখ্য, গত রোববার বিকেলে রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটে শেখ সেলিম বলেছিলেন, ‘আন্দোলনের নামে নৈরাজ্য ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড যারা করে তারা রাস্তায় বেরুলে হাত-পা কেটে দেয়া হবে।’ তার এই বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় সোমবার বিএনপি যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ বলেন, ‘আন্দোলন স্তব্ধ করতে এ ধরনের হুমকি দেয়া হচ্ছে। হুমকিদাতারা হয়তো ভুলে গেছেন, এর পরিণতি হয় দেশ থেকে পালিয়ে যাওয়া নয়তো জনগণের সামনে বিচারের মুখোমুখি হওয়া।’ এদিকে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় এমন বক্তব্যের জন্য শেখ সেলিমকে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কারের পরামর্শ দিয়েছেন।

Share this post

scroll to top
error: Content is protected !!