DMCA.com Protection Status
ADS

নির্বাচন কমিশন নিয়ে বিএনপির ভাবনার প্রয়োজন নেইঃ মাহবুবুল আলম হানিফ

mhanif copy

ক্যাপ্টেন(অবঃ)মারুফ রাজুঃ  নির্বাচন কমিশন নিয়ে  বিএনপি বক্তব্য সম্পর্কে আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ বলেন, বিএনপি এখন নির্বাচন কমিশন নিয়ে কথা বলছে।আমি এখানে বলতে চাই, সংবিধান অনুযায়ী রাষ্ট্রপতি নির্বাচন কমিশন গঠন করবেন। স্বচ্ছ প্রক্রিয়ার মাধ্যমেই তিনি তা করবেন। এটা নিয়ে বিএনপির ভাবনার কোনো প্রয়োজন নেই।

মাহবুব-উল-আলম হানিফ আরো বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যার ধারবাহিকতা ছিল একই বছরের ৩ নভেম্বর জাতীয় চার নেতাকে জেলে হত্যা করা।

শুক্রবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আর সি মজুমদার মিলনায়তনে জেল হত্যা দিবস উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা ছিল মহান মুক্তিযুদ্ধে পরাজিত শক্তির চরম প্রতিশোধ। ১৯৭১ সালে যারা মহান মুক্তিযুদ্ধে পরাজয়কে মেনে নিতে পারেনি তারাই ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে নির্মমভাবে হত্যা করেছে। এই হত্যাকাণ্ডকে জায়েজ করার জন্যই ৩ নভেম্বর জেলের ভেতর নিরাপদ স্থানে জাতীয় চার নেতাকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছিল।

হানিফ বলেন, বিএনপি ১৯৭৫ সালের ৭ নভেম্বরকে জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস হিসেবে দাবি করে। প্রকৃত অর্থে বিপ্লব হতে হলে সেখানে আদর্শ থাকতে হয়। এই দিবসকে সৈনিক হত্যা দিবস হিসেবে পালন করা উচিত। জিয়াউর রহমান ক্ষমতাকে কুক্ষিগত করার জন্য ১২শ’ সৈনিককে হত্যা করেছিল। তাই এই দিবস গণহত্যা দিবস।

তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর জাতীয় চারনেতাকে বিশ্বাসঘাতক মোশতাকের মন্ত্রিসভায় যোগদানের কথা বলা হয়। কিন্তু জাতীয় চারনেতার বঙ্গবন্ধুর প্রতি অবিচল আস্থা ছিল এবং মোশতাকের সেই প্রস্তাবকে অগ্রাহ্য করে। আর সে কারণেই অত্যন্ত সুপরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়। এই হত্যাকাণ্ডের মূল লক্ষ্য ছিল মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধ্বংস করা।

আওয়ামী লীগের এ নেতা বলেন, আজকেও বিএনপি পাকিস্তানের ভাবধারা থেকে বেরিয়ে আসতে পারেনি। জাতীয় চারনেতার হত্যার পর কারা কর্তৃপক্ষ এফআইআর করলেও এটা আলোর মুখ দেখেনি। এর কারণ জিয়া বঙ্গবন্ধু হত্যায় জড়িত ছিলেন, জেল হত্যার সাথে জড়িত ছিলেন।

বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদের আয়োজনে অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদের সভাপতি ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক। অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক ছিলেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ কে এম এনামুল হক শামীম।

 

Share this post

scroll to top
error: Content is protected !!