DMCA.com Protection Status
ADS

নেতা বহিষ্কারেই প্রমাণিত হয় হিন্দু নির্যাতনে আওয়ামী লীগ জড়িতঃমেজর হাফিজ

majhaf1-copy

ক্যাপ্টেন(অবঃ)মারুফ রাজুঃ  ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে হিন্দু সমপ্রদায়ের মন্দির ও বাড়িঘর ভাঙচুরের ঘটনায় আওয়ামী লীগকে দায়ী করে ওই ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত দাবি করেছে বিএনপি।

সরকার জনগণকে নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হয়েছে মন্তব্য করে সরকারের পদত্যাগও চেয়েছে দলটি।

গতকাল সকালে বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ে আয়োজিত  এক সংবাদ সম্মেলনে এই দাবি জানান দলের ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজউদ্দিন আহমদ বীরবিক্রম।

শুক্রবার হাফিজের নেতৃত্বে বিএনপি’র একটি প্রতিনিধি দল নাসিরনগরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করার পর গতকাল এ সংবাদ সম্মেলন করে দলটি।

মেজর (অব.) হাফিজ বলেন, বর্তমান সরকার নির্বাচিত না হলেও তাদের ধন্যবাদ দিতে চাই যে নাসিরনগরের ঘটনাটি কারা ঘটিয়েছেন, তাদের দলীয় নেতাদের শাস্তি দিয়ে তাঁদের স্বরূপ জনসমক্ষে উন্মোচন করেছেন। নাসিরনগর সদরের ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও তাদের অন্য দুইজন নেতাকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করেছে আওয়ামী লীগ।

এর মাধ্যমে দেশবাসীর কাছে আজ দিবালোকের মতো স্পষ্ট হয়েছে কারা এই ধরনের সামপ্রদায়িক সমপ্রীতি বিনষ্ট করার মূল হোতা। গত সাত বছরে যেসব ঘটনা ঘটেছে, তাতে আওয়ামী লীগের নেতাদের প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ হাত রয়েছে।

বিএনপি’র এ ভাইস চেয়ারম্যান বলেন, নাসিরনগরে প্রথম হামলার ঘটনা অনাকাঙিক্ষত বলা যেতে পারে। কিন্তু পরবর্তীতে ছয়টি বাড়িতে নতুন করে আগুন দেয়া হয়েছে। এতেই প্রমাণিত হয় এর পেছনে ষড়যন্ত্র রয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিরা অভিযোগ করেছেন, হামলা হয়েছে একটার দিকে আর পুলিশ ঘটনাস্থলে  গেছে বিকাল পাঁচটার দিকে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা তৎপর হলে এ ধরনের ঘটনা এড়ানো যেত।

তিনি বলেন, নাসিরনগরের প্রকৃত ঘটনা উন্মোচনের জন্য হাইকোর্টের একজন বিচারপতির নেতৃত্বে একটি বিচার বিভাগীয় কমিশন গঠন করে যারা হিন্দুদের মন্দির ও বাড়িঘর ভাঙচুর করেছে তাদের বিচার করতে হবে। প্রকৃত অপরাধীদের বিচারের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করছি।

মুসলমান-হিন্দুরা যাতে একত্রে বসবাস করতে পারে সেজন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে সরকারের প্রতি দাবি করছি। একই সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে আরও তৎপর হওয়ার আহ্বান জানান।

পাশাপাশি দেশের সব জায়গায় হিন্দু সমপ্রদায়ের লোকজনদের রক্ষায় মুসলমানদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানাচ্ছি।

মেজর (অব.) হাফিজ বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নির্দেশে শুক্রবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে হিন্দু সমপ্রদায়ের মন্দির ও বাড়িঘরে হামলায় ক্ষতিগ্রস্তদের সহমর্মিতা জানাতে গিয়েছিলাম। সেখানে গিয়ে ধ্বংস লীলা দেখে আমরা মর্মাহত। আমরা এ হামলার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

ক্ষতিগ্রস্ত হিন্দুদের বক্তব্য তুলে ধরে তিনি বলেন, নাসিরনগরে আমরা কোনো রাজনীতি করতে যাইনি। ঘটনাস্থলে এর ব্যাপকতা দেখে আমরা বেদনাহত হয়েছি। যার নিন্দা জানানোর ভাষা আমাদের জানা নেই। স্বাধীন বাংলাদেশে হিন্দু সমপ্রদায়ের উপর আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে এই ধরনের হামলা আমাদের স্তম্ভিত করেছে।

হিন্দুু সমপ্রদায়ের লোকজন অভিযোগ করেছেন, পুলিশ বাহিনী ওই হামলার সময়ে তাদের কোনো কাজে লাগেনি। বরং তাদের প্রতিবেশী মুসলিম পরিবারগুলো এসে মন্দির ভাঙার কাজে বাধা দিয়েছে। হিন্দু পরিবারগুলো যখন আশ্রয় নিতে গেছেন, তাদের আশ্রয় দিয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা লক্ষ্য করেছি, সরকারের ক্ষমতাসীন ব্যক্তিরা হিন্দু সম্পত্তি গ্রাস করেছেন। পুরনো জেলাগুলোতে স্বাধীনতার  পর থেকেই হিন্দুদের সম্পত্তিগুলো আওয়ামী লীগের লোকেরা দখল করে রেখেছেন, যা প্রমাণিত সত্য। আমরা চাই, যে সব লোক হিন্দুদের সম্পত্তি দখল করেছে তাদের একটি তালিকা করে তাদের বিচার হোক।

নাসিরনগরে হামলায় বিএনপি জড়িত আওয়ামী লীগ নেতা মাহবুব-উল হানিফের এমন বক্তব্যের জবাবে তিনি বলেন, আজ দেশের আবহাওয়া খারাপ। ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত চলছে। হয়তো আওয়ামী লীগ নেতারা বলবেন, এটার জন্য বিএনপি দায়ী। আরও বলতে পারেন, এর জন্য জিয়াউর রহমান দায়ী। তিনিই বলে গেছেন ২০১৬ সালে আবহাওয়া খারাপ করতে হবে। আওয়ামী লীগ নেতাদের এ রকম হাস্যকর কথা কেউ আর বিশ্বাস করে না।

আওয়ামী লীগ নেতারা হিন্দুদের নিজেদের ‘ভোট ব্যাংক’ ভাবলেও কেন তাদের উপর এই হামলা হচ্ছে- প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, এর প্রধান কারণ হচ্ছে- আওয়ামী লীগের আর ভোটের প্রয়োজন নেই। সেজন্য তারা এসব করছে।

নাসিরনগরে ক্ষতিগ্রস্তদের ত্রাণ সহায়তা দিতে সৈয়দ একরামুজ্জামানের নেতৃত্বে অচিরেই বিএনপি’র কাজ শুরু হবে বলে জানান তিনি। সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি চেয়ারপারসনের সদস্য সঞ্জীব চৌধুরী, যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুবউদ্দিন খোকন, কেন্দ্রীয় নেতা গৌতম চক্রবর্তী, সুশীল বড়ুয়া, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল আউয়াল খান, সহ-আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ফাহিমা মুন্নী ও ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা উপস্থিত ছিলেন।
 

Share this post

scroll to top
error: Content is protected !!