DMCA.com Protection Status
ADS

আগামী রোববার থেকে আরো কঠোর হবে বিএনপি

Logo-bnpসরকার অবিলম্বে পদত্যাগ করে নির্বাচনের ব্যবস্থা না করলে আগামী রোববার থেকে আরো কঠোর কর্মসূচি পালনের হুমকি দিয়েছে বিএনপি।

প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব সালাহ উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘সময় থাকতে জনদাবি মেনে নিয়ে অবিলম্বে পদত্যাগ করুন। জনগণের অভিপ্রায় অনুযায়ী নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের ব্যবস্থা নিন, তাহলেই আপনার নিরাপদ প্রস্থানের বিষয়টি জনগণ সহানুভূতির সঙ্গে বিবেচনা করবে। তা না হলে রোববার থেকে কঠোর কর্মসূচি পালনে আমরা বাধ্য হবো।’

আন্দোলনে ‘বিজয়’ অর্জিত না হওয়া পর্যন্ত চলমান অনির্দিষ্টকালের শান্তিপূর্ণ অবরোধ কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে বলে জানান এ বিএনপি নেতা।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, হরতাল-অবরোধ চলাকালে নাশকতায় যেসব নিরীহ মানুষ নিহত হয়েছেন, তাদের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত এবং আহতদের সুস্থতা কামনা করেন তিনি। একই সঙ্গে বিএনপিসহ ২০ দলীয় জোটের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহার ও গ্রেফতারকৃত দের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেন তিনি।

বিএনপি নেতৃত্বাধীন জোটের গত এক মাসের আন্দোলনে ১৫ হাজারের বেশি নেতা-কর্মীকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে বলে দাবি করেন বিএনপির এই নেতা। তিনি বলেন, ‘এই সরকার ক্ষমতায় টিকে থাকার নেশায় পোড়ামাটি নীতি অবলম্বন করেছে।’

পেট্রোল বোমা হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে এই হিংস্রতার সঙ্গে জড়িত দুর্বৃত্তদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবি করেন সালাহ উদ্দিন আহমেদ। একই সঙ্গে এসব ঘটনার জন্য ক্ষমতাসীনদের দায়ী করেন তিনি।

বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘সরকারবিরোধী ন্যায়সঙ্গত গণআন্দোলনকে কলুষিত করে রাজনৈতিক হীন স্বার্থ চরিতার্থ করাই এর প্রকৃত উদ্দেশ্য এবং এটি আওয়ামী রাজনীতির অবিচ্ছেদ্য অপসংস্কৃতি।’

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াসহ ২০ দলীয় জোটের জ্যেষ্ঠ নেতাদের পরিকল্পিতভাবে হুকুমের আসামি করে মামলা দায়েরের নিন্দা ও প্রতিবাদ এবং তার বিরুদ্ধে করা সব মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান তিনি।

আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘তাদের নসিহত করতে চাই, আপনারা প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী। ক্ষমতার পট পরিবর্তন হলে আপনাদের প্রত্যেকটি বেআইনি কর্মকান্ডের জন্য জবাবদিহি করতে হবে। অতএব অবৈধ সরকারকে টিকিয়ে রাখার জন্য সরকারের বেআইনি নির্দেশ আপনারা মানতে বাধ্য নন। নিরীহ জনগণের বুকে গুলি চালাবেন না। যে কর্মকর্তা একটি লাশের বদলে দুটি লাশ ফেলার ঘোষণা দিয়েছেন তার ভবিষ্যৎ পরিণতি কখনোই শুভ হতে পারে না।’

 

 
 
 
 

Share this post

scroll to top
error: Content is protected !!