DMCA.com Protection Status
ADS

দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার প্রস্তাব নাকচ করলো আওয়ামী লীগ

আওয়ামী লীগ খালেদার প্রস্তাব নাকচ করলো আ.লীগঢাকা: রাজনৈতিক সঙ্কট নিরসনে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার দেয়া নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের প্রস্তাবের বিষয়ে আলোচনার কোনো সুযোগ নেই বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ।

খালেদা জিয়ার সংবাদ সম্মেলনের বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানাতে বুধবার সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘বরাবরের মতোই মিথ্যা তথ্য দিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন খালেদা জিয়া। ধারাবাহিকভাবে মিথ্যা তথ্য দিয়ে সংবাদ সম্মেলন করা খালেদা জিয়া ও তার দলের চরিত্র হয়ে দাঁদিয়েছে।’

নির্বাচন প্রসঙ্গে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘বাংলাদেশে আর কখনো তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা ফিরে আসবে না। সংবিধান অনুযায়ী ২০১৯ সালেই নির্বাচন হবে।’

আলোচনার প্রসঙ্গে টেনে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘যেকোনো দলের সঙ্গেই আলোচনা হতে পারে তবে যুদ্ধাপরাধী ও জঙ্গি সংশ্লিষ্ট কোনো দলের সঙ্গে না।’

হাছান মাহমুদ আরো বলেন, ‘বেগম জিয়া ৫ জানুয়ারির নির্বাচন বানচাল করে গণতন্ত্রকে হত্যা করতে চেয়েছিলেন। এ জন্যই তিনি ৫ জানুয়ারি গণতন্ত্রের হত্যা দিবস পালন করবেন।’

‘বেগম জিয়া আবারো বিশৃঙ্খল পরিবেশ সৃষ্টি করতে চান- এটা আওয়ামী লীগ অনেক দিন আগে থেকেই বলে আসছে। গণতন্ত্রকে হত্যা করে দেশে বিশৃঙ্খল পরিবেশ সৃষ্টি করে তিনি ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে চান।’

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘২০ দলীয় জোট বোমা মেরে মানুষ খুন করছে। নতুন বছরে শপথ নিতে হবে এদের প্রতিহত করার।’

বিএনপি সমাবেশ করতে দেয়া হচ্ছে না- বিএনপি চেয়ারপারসনের এমন অভিযোগের জবাবে সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, ‘২ জানুয়ারি ছাত্রদলকে সমাবেশে অনুমতি দেয়া হয়েছে। তবে কোনো দল যদি সমাবেশের আড়ালে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে চায় তাহলে সরকার এবং আওয়ামী লীগ তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেবে।’

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন- আওয়ামী লীগ নেতা আফজাল হোসেন, সুদীপ নন্দী রায়, এনামুল হক শামীম, শামসুল হক টুকু, আবদুস সোবহান গোলাপ।

Share this post

scroll to top
error: Content is protected !!