DMCA.com Protection Status
ADS

ভারতের দুটি কারখানায় উৎপাদন বন্ধ করল টয়োটা

index toyotaভারতের দুটি যন্ত্রাংশ সংযোজন কারখানায় উৎপাদন বন্ধ করে দিয়েছে টয়োটা। গতকাল সোমবার এ তথ্য জানায় জাপানি গাড়ি নির্মাতা কোম্পানিটি। শ্রমিকদের সঙ্গে সমঝোতা আলোচনা ভেস্তে যাওয়ায় ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তাদের নিরাপত্তাহীনতা ও উদ্দেশ্যমূলকভাবে উৎপাদনকাজে বিঘ্ন ঘটানোর বিষয়টি উঠে আসার পরিপ্রেক্ষিতেই এ সিদ্ধান্ত নেয় কোম্পানিটি। খবর এএফপির।

বিশ্বের শীর্ষ গাড়ি নির্মাতা কোম্পানিটির পক্ষ থেকে জানানো হয়, উৎপাদন বন্ধের কারণে কারখানা দুটিতে কর্মরত ৬ হাজার ৪০০ কর্মী বেকার হয়ে পড়বে। এর আগে শ্রমিকদের দাবি-দাওয়া মেটাতে প্রায় ১০ মাস ধরে সমঝোতা আলোচনা চালিয়ে আসছিল টয়োটা। এতে স্থানীয় সরকারও মধ্যস্থতা করে। টয়োটা এক বিবৃতিতে জানায়, আলোচনা চলার সময়ে শ্রমিক সংগঠনের প্ররোচনায় উদ্দেশ্যমূলকভাবে বেশ কয়েকবার উৎপাদনকাজ ব্যাহত হয়। যার নেতিবাচক প্রভাবে গত ২৫ দিনে তাদের ব্যবসায়িক কার্যক্রমে ব্যাপক বিঘ্ন ঘটে। এসব কারণেই টয়োটা এখানে দুটি কারখানার কার্যক্রম বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয়। কারণ সাধারণ শ্রমিক ও ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তাদের নিরাপত্তা দিতে তারা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। অবশ্য টয়োটার মুখপাত্র জানান, শিগগিরই উৎপাদন শুরু করার ব্যাপারে তারা আশাবাদী। তবে কোনো নির্দিষ্ট দিনক্ষণ তিনি উল্লেখ করেননি।

কারখানা দুটি বন্ধ হওয়ার কারণে ভারতের বাজারে টয়োটার বেশ কয়েকটি মডেলের    গাড়ির উৎপাদন ও বাজারজাত ব্যাহত হবে।   যার মধ্যে রয়েছে কেমরি সেডান, করোলা ও প্রিয়াস হাইব্রিড। টয়োটা আরো জানায়,   কারখানা দুটিতে বছরে ৩ লাখ ১০ হাজার গাড়ি উৎপাদন হতো।
টয়োটার কারখানা বন্ধের ঘটনাটি এমন সময়ে ঘটল, যখন জাপান ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক আরো দৃঢ় করতে চাইছে। এ অঞ্চলের ওপর থেকে চীনা বলয়ের প্রভাব কাটানোর জন্যই সম্পর্ক উন্নয়নে আগ্রহী জাপান কর্তৃপক্ষ।
 

 

Share this post

scroll to top
error: Content is protected !!