DMCA.com Protection Status
ADS

পঞ্চম এশিয়া কাপ জিতলো শ্রীলংকা

image_114391আগের এশিয়া কাপ ফাইনালের সঙ্গে তুলনা করলেই ম্যাড়মেড়ে এক ফাইনাল হয়ে গেল গতকাল। 



সেই সমুদ্রের গর্জন ছিল না, ছিল না গ্যালারিতে উপচে পড়া ভিড়। যা কিছু দর্শক এসেছিলেন, তারাও খেলা শেষ হওয়ার অনেক আগে মাঠ ছেড়ে বের হয়ে গেলেন। এমন উত্সবহীন, উচ্ছ্বাসহীন পরিবেশেই গতকাল শনিবার ফাওয়াদ আলমের সেঞ্চুরিকে ম্লান বানিয়ে শ্রীলঙ্কাকে নিজেদের পঞ্চম এশিয়া কাপ ট্রফি জিতিয়ে দিলেন লাসিথ মালিঙ্গা, লাহিরু থিরিমান্নেরা। 



ফাওয়াদ আলমের সেঞ্চুরিতে ভর করে আগে ব্যাট করা পাকিস্তান তুলেছিল ২৬০ রান। থিরিমান্নের সেঞ্চুরিতে ভর করে ৩.৪ ওভার হাতে রেখেই সে রান মাত্র ৫ উইকেট হারিয়ে টপকে গেল শ্রীলঙ্কা। 



শ্রীলঙ্কাকে শুরুটা এনে দিয়েছিলেন লাসিথ মালিঙ্গা। দলীয় মাত্র ১৭ রানে আগে ব্যাট করতে নামা পাকিস্তানের ৩ টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানকে ফিরিয়ে দেন তিনি। এরপর অবশ্য পাকিস্তান দারুণভাবে লড়াইয়ে ফিরে আসে। মূলত মিসবাহ ও ফাওয়াদ আলমের ১২২ রানের জুটিতে প্রাণ ফিরে পায় পাকিস্তান। মিসবাহ ৬৫ রান করে ফেরার পর আকমলের সঙ্গে ফাওয়াদের ১১৫ রানের জুটি তাদের অপ্রত্যাশিত রানে পৌছে দেয়। ইনিংস শেষে ফাওয়াদ নিজেই বলেছেন, এতো রান তারাও শুরুর বিপর্যয়ের পর কল্পনা করেননি। 



প্রথম ওই তিন উইকেটের পর মিসবাহ ও আকমলের উইকেট দুটোও শেষ বেলায় তুলে নিয়ে প্রথম ম্যাচের মতো শেষ ম্যাচেও ৫ উইকেট তুলে নেন মালিঙ্গা। আর ১১৪ রানে অপরাজিত থাকেন ফাওয়াদ। 



শ্রীলঙ্কার এশিয়া কাপ শুরু হয়েছিল থিরিমান্নের সেঞ্চুরি ও মালিঙ্গার ৫ উইকেট দিয়ে। বোলিংয়ে মালিঙ্গা ৫ উইকেট নিয়ে নেওয়ার পরই থিরিমান্নে হয়তো শেষটাও একইরকম করবেন বলে ঠিক করে ফেলেন!



কুশল পেরেরার সঙ্গে থিরিমান্নের উদ্বোধনী জুটিটা ভালোই ছিল। ৫৬ রান তুলে ফেলেছিলেন তারা। কিন্তু ওই একই স্কোরে কুশল ও সাঙ্গাকারাকে পরপর দুই বলে ফিরিয়ে দলকে একটু হলেও খেলায় ফিরিয়ে আনেন সাঈদ আজমল। কারণ, সামনে তখন 'আউট অব ফর্ম' মাহেলা জয়াবর্ধনে। কিন্তু থিরিমান্নের সঙ্গে মিলে ১৫৬ রান যোগ করে ওই জয়াবর্ধনেই টেনে তোলেন দলকে। জয়াবর্ধনে ৭৫ রান করে ফেরেন এবং থিরিমান্নে প্রথম ম্যাচের মতো আরও একটা সেঞ্চুরি নিয়ে দলের জয় প্রায় নিশ্চিত করেই আউট হন; দলের জয়ের জন্য তখন আর দরকার মাত্র ১৪ রান।



ম্যাথুস ও চতুরাঙ্গ ডি সিলভা সে ১৪ রান তুলে নিতে আর কোনো ভুল করেননি। ফলে অনায়াসে এক জয় পেয়ে যায় শ্রীলঙ্কা। 



স্কোরকার্ড



পাকিস্তান



রান বল ৪ ৬



শারজিল ক থিসারা ব মালিঙ্গা ৮ ৬ ২ ০



শেহজাদ ক সাঙ্গাকারা ব মালিঙ্গা ৫ ৭ ১ ০



হাফিজ ক সাঙ্গাকারা ব মালিঙ্গা ৩ ১৩ ০ ০



মিসবাহ ক কুশল ব মালিঙ্গা ৬৫ ৯৮ ৩ ২



ফাওয়াদ নটআউট ১১৪ ১৩৪ ৮ ৩



আকমল ক প্রিয়াঞ্জন ব মালিঙ্গা ৫৯ ৪২ ৭ ০



আফ্রিদি নটআউট ০ ০ ০ ০



অতিরিক্ত (বা ১, ও ৫) ৬



মোট: ৫০ ওভারে ২৬০/৫



বোলিং: মালিঙ্গা ১০-০-৫৬-৫, লাকমল ১০-২-৪১-০, সেনানায়েকে ৯-০-৫৪-০, থিসারা ১০-১-৬৬-০, ম্যাথুস ৭-১-২৩-০, ডি সিলভা ৪-০-১৯-০



শ্রীলঙ্কা



কুশল স্ট্যা আকমল ব আজমল ৪২ ৩৭ ৬ ১



থিরিমান্নে ব আজমল ১০১ ১০৮ ১৩ ০



সাঙ্গাকারা এলবিডব্লিউ আজমল ০ ১ ০ ০



জয়াবর্ধনে ক শারজিল ব তালহা ৭৫ ৯৩ ৯ ১



প্রিয়াঞ্জন ক আকমল ব জুনায়েদ ১৩ ১৮ ২ ০



ম্যাথুস নটআউট ১৪ ১২ ২ ০



ডি সিলভা নটআউট ৬ ৯ ১ ০



অতিরিক্ত (বা ১, লেবা ১, ও ৫, নো ১) ৮



মোট: ৪৬.২ ওভারে ২৬১/৫



বোলিং: হাফিজ ৯-০-৪২-০, গুল ৬-০-৪৪-০, জুনায়েদ ৯-০-৫৬-১, আজমল ১০-২-২৬-৩, তালহা ৬.২-০-৫৬-১, আফ্রিদি ৬-০-৩৫-০ 



ফল: শ্রীলঙ্কা ৫ উইকেটে জয়ী

 

 

Share this post

scroll to top
error: Content is protected !!