DMCA.com Protection Status
ADS

বাংলাদেশের মর্যাদায় পদাঘাতঃপোশাক শিল্পমালিক সহ সকলকে রুখে দাড়াতে হবে

image_80772_0 আমেরিকান অ্যাপারেল নামে যুক্তরাষ্ট্রের একটি পোশাক প্রতিষ্ঠান জনৈক বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত নারী মডেলের অর্ধনগ্ন ছবি ব্যবহার করে একটি বিজ্ঞাপন প্রকাশ করেছে। তার নগ্ন বুকের উপর বড় বড় অক্ষরে লেখা হয়েছে ‘মেড ইন বাংলাদেশ’। এটি ওই প্রতিষ্ঠানের জিন্স প্যান্টের বিজ্ঞাপন।প্রতিষ্ঠানটি যুক্তরাষ্ট্রে পোশাক উৎপাদন, সরবরাহ ও খুচরা বিক্রি করে থাকে।
আমেরিকান অ্যাপারেলের এই ন্যক্কারজনক ঘটনা এরইমধ্যে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে ব্যাপক আলোড়ন তুলেছে। এ ধরণের বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে আমেরিকান অ্যাপারেল বাংলাদেশের মর্যাদায় পদাঘাত করেছে বলে সরব হয়ে উঠেছেন বাংলাদেশিরা। রাষ্ট্রীয়ভাবে এ ঘটনার প্রতিবাদ জানানোর দাবিও তুলেছেন কেউ কেউ।


বিতর্কিত সে মডেলের নাম ‘ম্যাকস’। তার বাবা-মা বাংলাদেশি, সুতরাং জন্মসূত্রে তিনিও তাই। যদিও এ মুহূর্তে তিনি বিশেষ কোনো জাতিসত্তায় বিশ্বাসী নন বলে উল্লেখ করা হয়েছে।


চার বছর বয়সে মাকস পরিবারের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় স্থায়ী হন।


এমন ছবির পেছনে তার ভিন্নতর দর্শণ সম্পর্কে ব্যাখ্যা করা হয়েছে। খুব ছোটবেলায় যুক্তরাষ্ট্রে এসে এখানকার পরিবেশের সঙ্গে খাপ খাওয়াতে গিয়ে তার জীবনধারায় এবং ভাবনায় পরিবর্তন আসে। ছোটবেলা থেকে শুরু করে হাইস্কুল পর্যন্ত তিনি ইসলামি অনুশাসন মেনে চলতেন তিনি। এরপর হঠাৎ ধর্ম, জাতিসত্তা, পোশাক সবকিছু সম্পর্কেই তার ভাবনাচিন্তায় আমূল পরিবর্তন আসে। তার ভাষ্যমতে তিনি আমেরিকানও নন, বাংলাদেশিও নন। তিনি কোনো সামাজিক বন্ধন, অনুশাসন, প্রথা মানেন না এবং মানুষ কোনো সমাজের এ সব বেঁধে দেয়া প্রথায় ধরা পড়তে পারে- এটা স্বীকার করেন না। এমন অর্ধনগ্ন হয়ে মডেলিং করা তার এক বিচিত্র প্রতিবাদ বলে মন্তব্য করছেন অ্যামেরিকান অ্যাপারেল সংশ্লিষ্টরা।


কিন্তু অনেকের মনেই প্রশ্ন উঠেছে, তিনি যদি কোনো জাতিসত্তায় বিশ্বাসী না-ই হবেন, সেক্ষেত্রে কোথায় জন্মেছেন সেটা তার কাছে এমন ফলাও করে উল্লেখ করার মতো বিষয় বলে মনে হবে কেন।নারীর  নগ্ন বুকের ওপর ‘মেড ইন বাংলাদেশ’ লিখে তিনি বাংলাদেশের আবহমান রীতি,ধর্মীয় মূল্যবোধ এবং শালীনতার প্রতি অনুচিৎ অবজ্ঞা প্রকাশ করেছেন এবং আমেকিান অ্যাপারেল একই দোষে দুষ্ট হতে পারে বলে মন্তব্য করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের অনেক নাগরিক।
বাংলাদেশের মান ক্ষুণ্ন করা ওই বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে আসলে কী বোঝানো হয়েছে তা পরিষ্কার না।


ইতোপূর্বে ষাটোর্ধ এক প্রৌঢ়াকে লিংগারি পরিয়ে বিজ্ঞাপন করানোর পরও বির্তকিত হয়েছিল অ্যামেরিকান অ্যাপারেল। বিজ্ঞাপনের এমন অসুস্থ রূপ খোদ যুক্তরাষ্ট্রেই দারুণ বিতর্কের জন্ম দিয়েছে।


আমেরিকান অ্যাপারেলের সাইটে বিজ্ঞাপনটি দেখা যাবে।

Share this post

scroll to top
error: Content is protected !!