DMCA.com Protection Status
ADS

বিতর্কিত সিম পুনঃনিবন্ধনের সময়সীমা বাড়লো আরো এক মাস

tarana copy

ক্যাপ্টেন(অবঃ)মারুফ রাজুঃ  মোবাইল ফোনের সিম পুনঃনিবন্ধনের বহুল আলোচিত এবং  বিতর্কিত কার্যক্রমের সময়সীমা বাড়লো আরো এক মাস। ১ মে থেকে ৩১ মে রাত ১২টা পর্যন্ত সময় বর্তিত করা হয়েছে।

কিন্তু যেসব গ্রাহক ইচ্ছাকৃতভাবে নিবন্ধন করেননি তাদের সিম এসময় পর্যন্ত প্রতিদিন তিনঘণ্টা করে বন্ধ থাকবে। এভাবে বন্ধ থাকার পর ৩১ মে রাত ১২টার পরও যারা নিবন্ধন করবেন না তাদের সিম সরাসরি বন্ধ করে দেয়া হবে। বন্ধ করে দেয়া সেই সিম ১৫ মাস পর্যন্ত পুনঃ বিক্রি করা হবে না।

এমনটাই জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম।

শনিবার বিকেল ৫টার দিকে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) ভবনে এক সংবাদ সম্মেলন করে এ তথ্য জানানো হয়।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম জানিয়েছেন, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে যারা এখনো বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে (আঙুলের ছাপে) সিম নিবন্ধন করতে ব্যর্থ হয়েছেন তাদের সিম প্রতিদিন তিন ঘণ্টা করে বন্ধ থাকবে।

তারানা হালিম জানান, সিম পুনঃনিবন্ধনের সময়সীমা বাড়লো আরো এক মাস। ১ মে থেকে ৩১ মে রাত ১২টা পর্যন্ত সময় বাড়ানো হয়েছে। কিন্তু যেসব গ্রাহক ইচ্ছাকৃতভাবে নিবন্ধন করেননি তাদের সিম এসময় পর্যন্ত প্রতিদিন তিনঘণ্টা করে বন্ধ থাকবে।

প্রতিমন্ত্রী জানান, অনিবন্ধিত সিম এভাবে বন্ধ থাকার পর ৩১ মে রাত ১২টার স্থায়ী ভাবে বন্ধ করে দেয়া হবে।

তিনি বলেন, বর্তমান সরকার জনগণের মতামতকে সব সময় গুরুত্ব দিয়ে এসেছে। এখনও দিচ্ছে। এজন্য আঙুলের ছাপ পদ্ধতিতে সিম নিবন্ধনের সময়সীমা আগামী ৩০ মে রাত ১২টা পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হয়েছে।

তারানা হালিম বলেন, ৩১ মের পর থেকে অনিবন্ধিত সিম একেবারে বন্ধ করে দেয়া হবে। তিনি এই সময়সীমার মধ্যে সব গ্রাহককে তাদের অনিবন্ধিত সিম নিবন্ধন করে নেয়ারও আহ্বান জানান। একই সঙ্গে বর্তমানে যে গতিতে আঙুলের ছাপ পদ্ধতিতে সিম নিবন্ধনের কাজ চলছে, তা যেন কোনোভাবেই শ্লত না হয়, মোবাইল অপারেটরগুলোর প্রতি তাগিদ দেন তারানা হালিম।

এর আগে সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, ৩০ এপ্রিলের পর আঙুলের ছাপ পদ্ধতিতে সিম নিবন্ধনের সময় আর বাড়ানো হবে না। ১ মে থেকে অনিবন্ধিত সিম ৩ ঘণ্টা করে বন্ধ করে দেয়া হবে।

তবে এই সময়সীমার মধ্যে অনেক গ্রাহক তাদের সিম নিবন্ধন করতে পারেনি জানিয়ে বিটিআরসিতে মোবাইল অপরারেটরগুলো সময় বাড়ানোর আবেদন করে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে শনিবার প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম এ ঘোষণা দিলেন।

Share this post

scroll to top
error: Content is protected !!