DMCA.com Protection Status
ADS

রমজানের আগ পর্যন্ত ইস্যুভিত্তিক কর্মসূচি দিয়ে মাঠ গরম রাখতে চায় বিএনপি

10254019_10203643333833025_7184391415674446518_nদৈনিক প্রথম বাংলাদেশ প্রতিবেদনঃ রমজানের আগ পর্যন্ত ইস্যুভিত্তিক ‘শান্তিপূর্ণ’ কর্মসূচি দিয়ে রাজপথ উত্তপ্ত রাখতে চায় সংসদের বাইরে থাকা বিএনপি। এরই অংশ হিসেবে বেশকিছু কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।

রমজান মাসকে ‘সাংগঠনিক মাস’ হিসেবে ঘোষণা করে ঈদের পর ধীরে ধীরে কঠোর আন্দোলনে যাওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে দলটির। বিএনপি সূত্র জানিয়েছে, আগামী ২১ মে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলার শুনানি রয়েছে।

ওইদিন ব্যাপক শোডাউন করবে দলটি। এছাড়া ২২ মে ‘র্যাববিরোধী’ সম্মেলন এবং ২৪ মে আইনজীবী সমাবেশ হবে। এসব কর্মসূচিতে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া উপস্থিত থাকবেন। রমজানের আগে এবং রমজান চলাকালে দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতির প্রতিবাদেও কর্মসূচি থাকবে। ইতিপূর্বে বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর সঙ্গে লোডশেডিংয়ের প্রতিকার চেয়েও বিক্ষোভ করার সিদ্ধান্ত রয়েছে বিএনপির।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য লে. জে. (অব.) মাহবুবুর রহমান  দৈনিক প্রথম বাংলাদেশকে   বলেন, ‘গণতন্ত্র নষ্ট হয়ে গেছে। তাই গণতান্ত্রিক অবস্থা ফিরিয়ে আনতে আমরা ইস্যুভিত্তিক কর্মসূচি পালন করব। সময়ের প্রয়োজনে কঠোর কর্মসূচিও আসবে।’ বিএনপির স্থায়ী কমিটির এক সদস্য বলেন, ঈদের আগ পর্যন্ত সপ্তাহে অন্তত একটি ইস্যুভিত্তিক কর্মসূচি পালনের চেষ্টা করা হবে। এসব কর্মসূচিতে খালেদা জিয়া উপস্থিত থাকবেন।

এখনকার রাজনৈতিক ইস্যু এবং ভবিষ্যতে যে ইস্যু সামনে আসবে, সব ইস্যুতে কাজে লাগানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। জানা গেছে, ২২ মে ‘র্যাববিরোধী’ সম্মেলনটি রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে হবে। র্যাব বিলুপ্তির দাবিতে মূলত এ সম্মেলন করা হলেও এতে নির্বাচনের আগে ও পরে গুম হওয়া নেতাকর্মীদের পরিবারকে হাজির করা হবে।

ওই সব পরিবারই তার স্বজনদের গুমের ঘটনার বর্ণনা দেবেন। জানা গেছে, ঢাকা মহানগর বিএনপি এ কর্মসূচির আয়োজন করছে। ইতিমধ্যে নগর বিএনপি এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের গুমের তালিকা তৈরি করা হয়েছে। গুম হওয়া ওই সব নেতাকর্মীর স্বজনদের সঙ্গে যোগাযোগ করে তাদের কর্মসূচিতে আসার অনুরোধ করা হয়েছে।

দলের এক নীতিনির্ধারক জানিয়েছেন, সারা দেশে গুম হওয়া বিএনপি নেতাকর্মীদের স্বজনদের র্যাবের বিরুদ্ধে মামলা করতে অনুরোধ জানানো হয়েছে। ইতিমধ্যে সাবেক এমপি হীরুর পরিবার মামলা করেছে। এ ধরনের মামলা আরও হবে।

র্যাবের বিরুদ্ধে আরও সোচ্চার হবেন তারা। জানা গেছে, ২১ মে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলার শুনানির দিন ব্যাপক শোডাউনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। শুনানি চলবে আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে দায়রা জজের অস্থায়ী স্পেশাল এজলাসে। ওইদিন লক্ষাধিক লোকের সমাগম করার জন্য ইতিমধ্যে অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনগুলো প্রস্তুতি সভা করেছে।

বিএনপি ইতিমধ্যে আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে এজলাসে শুনানি শুরুর বিরোধিতা করেছে। এ ঘটনার প্রতিবাদ জানাতেই মূলত সেখানে নেতাকর্মীরা উপস্থিত হবেন। নারায়ণগঞ্জে পেশাগত সহকর্মী চন্দন কুমার সরকারসহ সাতজন খুন এবং সারা দেশে গুম-অপহরণের প্রতিবাদে বিএনপি সমর্থক আইনজীবীদের মহাসমাবেশ করার ঘোষণা দেয়া হয়েছে।

সুপ্রিমকোর্ট এলাকায় আগামী ২৪ মের ওই সমাবেশে বিএনপি চেয়ারপারসন প্রধান অতিথি থাকবেন বলে জানিয়েছেন জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন। সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার দাবি, বিচার বিভাগের ওপর নির্বাহী বিভাগের নগ্ন হস্তক্ষেপ এবং নারায়ণগঞ্জে সাত হত্যাসহ সারা দেশে গুম, অপহরণ ও হত্যার প্রতিবাদে সারা দেশের আইনজীবীদের নিয়ে মহাসমাবেশের আয়োজন করা হয়েছে।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্যের সঙ্গে আলাপকালে জানা গেছে, শীঘ্রই বেগম খালেদা জিয়া ঢাকা মহানগর বিএনপি, ছাত্রদল, যুবদল ও স্বেচ্ছাসেবক দলের কমিটি গঠন করবেন। রোজার মাসে সাংগঠনিক সব কাজ শেষ করা হবে। ওই সময় তেমন কোনো কর্মসূচি না থাকায় ব্যাপক সংগঠন গোছাতে নানা পরিকল্পনা হাতে নেয়া হয়েছে। তাই ওই মাসকে সাংগঠনিক মাস হিসেবে ঘোষণা করা হবে। 

Share this post

scroll to top
error: Content is protected !!