DMCA.com Protection Status
ADS

লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা’ বয়কট করলো উদীচী

image_82524_0ইসলামী ব্যাংকের অনুদান বিতর্কের জেরে এবার ‘লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা’ অনুষ্ঠান বয়কট করলো দেশের বৃহত্তম সাংস্কৃতিক সংগঠন উদীচী।

বুধবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে অনুষ্ঠান থেকে নাম প্রত্যাহারের কথা জানায় সংগঠনটি।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় আয়োজিত ‘লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা’ শীর্ষক সাধারণ অনুষ্ঠানে সরকারের আমন্ত্রণ পেয়ে সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছিল।

কিন্তু অনুষ্ঠানটি আয়োজনের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যুদ্ধাপরাধী সংগঠন ও বাংলাদেশের স্বাধীনতাযুদ্ধে প্রত্যক্ষভাবে বিরোধিতাকারী জামায়াতে ইসলামীর তত্ত্বাবধানে পরিচালিত ইসলামী ব্যাংকের কাছ থেকে তিন কোটি টাকা অনুদান নিয়েছেন। যে সংবাদ দেশের প্রধান প্রধান গণমাধ্যমগুলোতে ছবিসহ প্রকাশিত হয়েছে। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে তীব্র সমালোচনা চলছে।

এরপর একজন মন্ত্রী ১৮ মার্চ সংবাদ সম্মেলন করে অনুদান নেয়ার কথা অস্বীকার করেন। অথচ একই দিন মাত্র কয়েক ঘণ্টা আগে সরকারের আরেক মন্ত্রী ইসলামী ব্যাংকের অর্থায়নে জাতীয় সংগীত গাওয়া উচিৎ নয় মন্তব্য করে টাকা ফেরত দেয়ার আহ্বান। যা প্রকারান্তরে সরকার যে অনুদান নিয়েছে সে সত্যটিকেই প্রতিষ্ঠিত করে।

তাছাড়া মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দেশের প্রথম সারির গণমাধ্যমগুলোতে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে ‘লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা’ অনুষ্ঠান আয়োজনের জন্য সরকারকে তিন কোটি টাকা দেয়ার বিষয়টি আবারো নিশ্চিত করে ইসলামী ব্যাংক কর্তৃপক্ষ।

সব মিলিয়ে ওই আয়োজনে ইসলামী ব্যাংকের অনুদান নেয়ার বিষয়ে নিশ্চিত হয়েছে উদীচী। এর তীব্র প্রতিবাদ আর নিন্দা জানাচ্ছে সংগঠনটি। একইসাথে বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী এ অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ থেকে বিরত থাকার সিদ্ধান্ত নিয়ে এর অংশগ্রহণকারীদের তালিকা থেকে নিজেদের নাম প্রত্যাহার করার ঘোষণা দিচ্ছে।

ইসলামী ব্যাংকের অনুদান ফেরত না দেয়া পর্যন্ত উদীচীর এ সিদ্ধান্ত বহাল থাকবে বলেও এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন উদীচীর কেন্দ্রীয় সভাপতি কামাল লোহানী এবং সাধারণ সম্পাদক প্রবীর সরদার।

Share this post

scroll to top
error: Content is protected !!