DMCA.com Protection Status
ADS

এলাকা দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন মন্ত্রীরা, সরকারি প্রার্থীকে জেতাতে নির্বিচারে বিরোধীদের গ্রেপ্তারঃরিজভী আহমেদ

image_81837_0দৈনিক প্রথম বাংলাদেশ রিপোর্টঃ   বিএনপির যুগ্মমহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদআজ  বলেছেন, ‘শনিবার অনুষ্ঠিতব্য তৃতীয় দফা উপজেলা নির্বাচনকে সমানে রেখে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করে সরকার দলীয় মন্ত্রী প্রমোদ মানকিন ও মুজিবুল হক চুন্নু প্রশাসনকে কাজে লাগাতে এলাকা দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন। এরই অংশ হিসেবে আইনশৃঙ্খলাবাহিনী ১৯ দলের নেতাকর্মীদের বাড়িতে বাড়িতে হানা দিয়ে নির্বিচারে গ্রেপ্তার করছে।’

শুক্রবার রাত ৮টায় নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

শনিবার তৃতীয় দফা অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনের সার্বিক বিষয় তুলে ধরতে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

রিজভী বলেন, ‘ময়মনসিংহ জেলার ধোবাউড়া উপজেলায় মন্ত্রী প্রমোদ মানকিন নির্বাচনকে প্রভাবিত করার জন্য গাড়িতে পতাকা উড়িয়ে নিজেদের প্রার্থীদের পক্ষে প্রচার চলাচ্ছেন। এটা নির্বাচনী আচরণবিধির লঙ্ঘন।’

এছাড়া কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক চুন্নু নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করে বাড়িতে বাড়িতে দাওয়াতের নামে বৈঠক করে, কিভাবে কেন্দ্র দখল করে নির্বাচনে জয়লাভ করা যায় সে বিষয়ে মিটিং করছেন। পুলিশকে বিএনপি নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তারের নির্দেশ দিচ্ছেন বলেও অভিযোগ করেন রিজভী।

রিজভী বলেন, ‘প্রশাসন এখন আওয়ামী লীগের নিয়ন্ত্রনে, প্রশাসনের কিছু করার নেই।’

সরকারি দলের প্রার্থীকে জয়ী করার জন্য র‌্যাব হুমকি প্রদান করছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘আগামিকালের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সন্ত্রাসীরা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। গোটা এলাকা ১৯ দলের নেতাকর্মী শুন্য হয়ে পড়েছে। সেখানকার নারী ও শিশুরা মানবেতর জীবনযাপন করছে।’

আসাদুজ্জামান নূরের গাড়িতে হামলার ঘটনাকে মিথ্যা আখ্যায়িত করে রিজভী বলেন, ‘সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আসাদুজ্জামান নূরের গাড়িতে হামলার মিথ্যা অভিযোগে সেখানে তিনজনকে ক্রসফায়ার দেয়া হয়েছে এবং পাঁচজন গুম হয়েছে। তিনজনের লাশ পাওয়া গেছে, দুইজনকে পাওয়া যাচ্ছে না।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমরা জানি যারা সাংস্কৃতিক চর্চা করেন তাদের মন সুশীল ও উদার থাকে। এরা যে এতো ভয়াবহ, এতো নিষ্ঠুর হতে পারে, তার নিদর্শন আমরা নিলফামারীতে দেখলাম।’
 
রিজভী বলেন, ‘নির্বাচনে সরকারি প্রার্থীকে জেতানোর জন্য দেশব্যাপী আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নির্বিচারে গ্রেপ্তার চালিয়ে যাচ্ছে। গতকাল থেকে এ পর্যন্ত সারা দেশে ১৭৬ জনের অধিক নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আহত হয়েছেন ২১০ জনের অধিক নেতাকর্মী।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে দলের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাসুদ আহমেদ তালুকদার, মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক শিরিন সুলতানা, সহ দফতর সম্পাদক আব্দুল লতিফ জনি, আসাদুল করিম শাহিন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন

Share this post

scroll to top
error: Content is protected !!