DMCA.com Protection Status
ADS

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর উচ্চ পর্যায়ে ব্যপক রদবদল

Maj-Gen-Md-Nazimuddin-and-M copy

ক্যাপ্টেন(অবঃ)মারুফ রাজুঃ  বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর অতি উচ্চ পর্যায়ে বেশ বড় ধরনের রদবদল হয়েছে আজ।সেনাবাহিনীর নতুন চিফ অফ জেনারেল স্টাফ (সিজিএস) হয়েছেন মেজর জেনারেল মো. নাজিম উদ্দীন, যিনি এতোদিন যাশোরে ৫৫ পদাতিক ডিভিশনের অধিনায়কের (জিওসি) দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।

জেনারেল নাজিম এই পদে লেফটেন‌্যান্ট জেনারেল সাব্বির আহমেদের স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন, যিনি গত সপ্তাহে অবসর প্রস্তুতি ছুটিতে গেছেন।   

১৯৮৩ সালে সেনাবাহিনীতে কমিশন পাওয়া মেজর জেনারেল নাজিম ৫৫ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি হওয়ার আগে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর মহাপরিচালকের দায়িত্বও পালন করেছেন।

ডিফেন্স সার্ভিসেস কমান্ড অ‌্যান্ড স্টাফ কলেজের (ডিএসসিএসসি) কমান্ড্যান্টের দায়িত্ব পালন করে আসা মেজর জেনারেল মো. সাইফুল আবেদিন প্রতিরক্ষা গোয়েন্দা মহা-পরিদপ্তরের (ডিজিএফআই) নতুন প্রধান হয়েছেন। গুরুত্বপূর্ণ এই পদে তিনি মেজর জেনারেল আকবর হোসেনের উত্তরসূরি।

ঢাকা সেনানিবাসের কচুক্ষেতে ডিজিএফআই এর ১৪ তলা ভবনে গত চার বছর দায়িত্ব পালন শেষে ১৩ বিএমএ লং কোর্সের মাধ্যমে কমিশন প্রাপ্ত মেজর জেনারেল আকবরকে নবম পদাতিক ডিভিশনের জিওসি করে পাঠানো হয়েছে সাভারে।

ডিজিএফআইয়ের নতুন ডিজি মেজর জেনারেল সাইফুল সেনাবাহিনীতে কমিশন পান ১৯৮৬ সালে ১৬ বিএমএ লং কোর্সের মাধ্যমে। এর আগেও তিনি প্রতিরক্ষা গোয়েন্দা মহা-পরিদপ্তরে কাজ করেছেন। এক সময় বাংলাদেশ ইনফ‌্যানন্ট্রি রেজিমেন্টাল সেন্টারের কমান্ড‌্যান্টের দায়িত্ব পালন করা এই সেনা কর্মকর্তা আইভরি কোস্টে জাতিসংঘ শান্তি মিশনেও কাজ করেছেন।

নবম পদাতিক ডিভিশনের দায়িত্ব পাওয়া মেজর জেনারেল আকবর আর্টিলারি কোর (গোলন্দাজ বাহিনী) এর একজন কর্মকর্তা। তিনি সেনাবাহিনীতে কমিশন পান ১৯৮৫ সালে।

তার কোর্সমেট মেজর জেনারেল ওয়াকার উজ জামান এতোদিন নবম পদাতিক ডিভিশনের জিওসি ছিলেন। এবার তাকে দেওয়া হয়েছে সেনা সদর দপ্তরের সামরিক সচিবের দায়িত্ব। এই দায়িত্বে তিনি মেজর জেনারেল আবদুল্লাহিল বাকির স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন।

বাংলাদেশ মিলিটারি অ‌্যাকাডেমির ১০ বিএমএ লং কোর্সের ক্যাডেট হিসেবে সেনাবাহিনীতে কমিশন পাওয়া আবদুল্লাহিল বাকি মিরপুরে ডিফেন্স সার্ভিসেস কমান্ড অ‌্যান্ড স্টাফ কলেজের (ডিএসসিএসসি) কমান্ড্যান্টের দায়িত্ব পেয়েছেন। একসময় তিনি জিওসি হিসেবে বগুড়া ক‌্যান্টনমেন্টেও ছিলেন।  

রামুতে দশম পদাতিক ডিভিশনের অধিনায়ক (জিওসি) মেজর জেনারেল আতাউল হাকিম সারওয়ার হাসান ঢাকা সেনানিবাসের লগ-এরিয়া কমান্ডার হয়েছেন। তিনি সেনাবাহিনীতে কমিশন পেয়েছিলেন ১১ বিএমএ লং কোর্সের ক্যাডেট হিসেবে।

দশম পদাতিক ডিভিশনের নতুন জিওসি করা হয়েছে মেজর জেনারেল মাকসুদুর রহমানকে।১৩ বিএমএ  লং কোর্সের ক্যাডেট হিসেবে কমিশন পাওয়া মাকসুদুর দারফুরে জাতিসংঘ শান্তি মিশনে ডেপুটি ফোর্স কমান্ডারের দায়িত্ব পালন করে এসেছেন।

গুলশানে হলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গি হামলার পর সশস্ত্র বাহিনীর পরিচালিত ‘অপারেশন থান্ডার বোল্ট’ শেষে অভিযানের তথ‌্য নিয়ে গণমাধ‌্যমের সামনে আসা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাঈম আশফাক চৌধুরী পদোন্নতি পেয়ে মেজর জেনারেল হচ্ছেন।

১৬ বিএমএ  লং কোর্সের মাধ‌্যমে কমিশন পাওয়া এই কর্মকর্তা সেনা সদর দপ্তরের ডাইরেক্টর মিলিটারি অপারেশনস (ডিএমও) পদ থেকে যশোর যাচ্ছেন ৫৫ পদাতিক ডিভিশনের নতুন জিওসি হয়ে।

 

Share this post

scroll to top
error: Content is protected !!