DMCA.com Protection Status
ADS

দেশনায়ক তারেক রহমানের ৫১তম জন্মদিন আজ

tarek-rahmanক্যাপ্টেন(অবঃ)মারুফ রাজুঃ বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান দেশনায়ক তারেক রহমানের ৫১তম জন্মদিন আজ । 

বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের পক্ষ থেকে প্রতিবার কেক কেটে তার জন্মদিন উদযাপন করা হয় । তবে এবার দেশের বর্তমান পরিস্থিতিতে কেক কেটে জন্মদিন পালনে নিষেধ করেছেন তারেক রহমান। তাই দিনটি উপলক্ষে পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচি পরিবর্তন করে দোয়া মাহফিল আয়োজন করছে বিএনপি ।

 বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বড় ছেলে তারেক রহমান পিনো ১৯৬৫ সালের ২০শে নভেম্বর জন্মগ্রহণ করেন । ছাত্রজীবন শেষে ব্যবসাকে পেশা হিসেবে বেছে নেন তিনি। বস্ত্রশিল্প, নৌ-যোগাযোগ খাতে বিনিয়োগ করে সাফল্য অর্জন করেন ।

১৯৮৮ সালে তারেক রহমান বগুড়া জেলার গাবতলী থানা বিএনপির সদস্য হন। আনুষ্ঠানিকভাবে সংগঠনে যোগ দেয়ার আগেই তারেক রহমান দলের রাজনীতিতে অত্যন্ত সক্রিয় ছিলেন ।

১৯৯১ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে খালেদা জিয়ার সঙ্গে সারা দেশের নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নেন। ২০০১ সালের নির্বাচনেও মায়ের পাশাপাশি তারেক রহমানও দেশব্যাপী নির্বাচনী প্রচারণা চালান। মূলত এ নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহণের মাধ্যমে রাজনীতির প্রথম সারিতে তারেক রহমানের সক্রিয় আগমন ঘটে ।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ২০০২ সালে তারেক রহমান দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিবের দায়িত্ব পান। এরপর জিয়াউর রহমানের ১৯ দফার আলোকে তারেক রহমান দেশব্যাপী দলের মাঠপর্যায়ের নেতাকর্মী ও সমর্থকদের সঙ্গে ব্যাপক গণসংযোগ শুরু করেন । মূল সংগঠন ছাড়াও জাতীয়তাবাদী যুবদল, ছাত্রদল , স্বেচ্ছাসেবক দলসহ বিভিন্ন সংগঠনের আয়োজনে উল্লেখযোগ্যসংখ্যক মতবিনিময় সভায় অংশ নিয়ে কর্মী-সমর্থকদের উদ্দেশে দিক-নির্দেশনামূলক বক্তব্য দেন ।

এই জনসংযোগের ফলে তরুণদের আস্থার প্রতীক হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হন তিনি । বিশেষ করে প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রীর সন্তানের পরিচিতি থেকে তিনি একজন দক্ষ রাজনৈতিক সংগঠক ও সক্রিয় নেতা হিসেবে পরিচিতি লাভ করেন । ওয়ান ইলেভেনের জরুরি সরকারের সময়ে ২০০৭ সালের ৭ই মার্চ তারেক রহমানকে তার ঢাকা ক্যান্টনমেন্টস্থ মইনুল রোডের বাসা থেকে গ্রেপ্তার করা হয় ।

দুর্নীতির মামলায় গ্রেপ্তারের পর রিমান্ডে নিয়ে তার ওপর নির্যাতন করা হয় । ২০০৮ সালের ৩রা সেপ্টেম্বর জামিনের মুক্তির পর চিকিৎসার জন্য লন্ডনে যান তারেক রহমান । তারপর থেকে সপরিবারে তিনি সেখানেই অবস্থান করছেন। ২০০৯ সালের ৮ই ডিসেম্বর ঢাকায় অনুষ্ঠিত বিএনপির পঞ্চম জাতীয় কাউন্সিলে তারেক রহমান সংগঠনের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন ।

ব্যক্তিগত জীবনে ১৯৯৪ সালের ৩রা ফেব্রুয়ারি  সাবেক নৌবাহিনী প্রধান রিয়ার অ্যাডমিরাল মাহবুব আলী খানের বড় মেয়ে ডা. জোবাইদার সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন তারেক রহমান । তার একমাত্র কন্যা জায়মা রহমান বর্তমানে লন্ডনে উচ্চশিক্ষায় অধ্যয়নরত ।

এদিকে নানা কর্মসূচির মাধ্যমে দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ৫১তম জন্মদিন উদযাপনের উদ্যোগ নিয়েছে বিএনপি ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনগুলো । বিএনপির মুখপাত্র ড. আসাদুজ্জামান রিপন বলেছেন , প্রতি বছর দলের নেতাকর্মীরা তারেক রহমানের জন্মদিন কেক কেটে পালন করেন । এবার তিনি তা করতে নিষেধ করেছেন। কারণ দলের অনেক নেতাকর্মী কারাগারে অবর্ননীয় দুর্ভোগে রয়েছেন ।

তবে শুক্রবার বাদ জুমা নয়া পল্টনে তারেক রহমানের জন্মদিন উপলক্ষে মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে । এছাড়া সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্প করবে বিএনপি । একইভাবে সারাদেশে জেলা , মহানগর ও উপজেলা পর্যায়ে দোয়া মাহফিল করবে প্রতিটি সাংগঠনিক ইউনিট ।

Share this post

scroll to top
error: Content is protected !!