DMCA.com Protection Status
ADS

নিজের নিরাপত্তা চেয়ে মিরপুর থানায় জিডি করেছেন হ্যাপি

happyএবার নিজের নিরাপত্তা চেয়ে মিরপুর থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন অভিনেত্রী নাজনিন আখতার হ্যাপি। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর থানায় গিয়ে ডায়রিটি করেন তিনি। জিডি নম্বর ১০৫৬। তারিখ ১৬ এপ্রিল ২০১৫।

 

এ ব্যাপারে হ্যাপি সাংবাদিকদের বলেন, "রুবেল হোসেনের বিরুদ্ধে মামলা চালিয়ে যাবার ঘোষণা দেবার পর থেকে তিনি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। মামলা তুলে নিতে তাকে বার বার হুমকি দেওয়া হচ্ছে। তাই বাধ্য হয়ে জিডি করেছেন।"

 

বিশ্বকাপে অসাধারণ পারফরমেন্সের পর জাতীয় দলের তারকা ক্রিকেটার রুবেল হোসেনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা তুলে নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন অভিনেত্রী হ্যাপি। তিনি রুবেলকে ক্ষমা করে দিয়ে নতুন করে জীবন শুরু করবেন বলে জানান। এবং রুবেলকে আর বিয়ে করতে চান না বলে জানান।

 

সম্প্রতি হ্যাপি মামলাটি চালিয়ে যাবার ঘোষণা দেন। এ প্রসঙ্গে তখন নাজনিন আক্তার হ্যাপি বলেন, "আমি ওই মামলা চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। খুব শীঘ্রই ট্রাইব্যুনালে মামলার শুনানি হবে। প্রতারকদের সাজা হওয়ার প্রয়োজন রয়েছে।"

এর পরই আজ বৃহস্পতিবার থানায় গিয়ে নিরাপত্তা চেয়ে জিডি করলেন হ্যাপি। উল্লেখ্য, বিশ্বকাপের ঠিক আগে জানুয়ারিতে হ্যাপির ধর্ষণের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তিনদিনের জন্য জেলে যেতে হয়েছিল বাংলাদেশি পেসার রুবেলকে।

 

পরে জামিন পান এবং বিশ্বকাপে বাংলাদেশের হয়ে খেলার অনুমতি পান। টুর্নামেন্ট বল হাতে দুরন্ত পারফর্ম করেন তিনি। ইংল্যান্ডকে হারিয়ে বাংলাদেশ কোয়ার্টার ফাইনালে যাওয়ার ছাড়পত্র পায়। ওই ম্যাচে ৪ উইকেট দখল করে জয়ের অন্যতম কারিগর ছিলেন রুবেল।

এই সাফল্যের পর নাজনিন রুবেলের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন। কিন্তু এখন তার মনে হচ্ছে, তিনি ভুল করেছিলেন। নাজনিন বলেছেন, আমি মানসিকভাবে বিধ্বস্ত ছিলাম। যখন রুবেল দেশের হয়ে ভালো খেলছিল তখন আমি ওকে ক্ষমা করার কথা ভেবেছিলাম। কিন্তু আমি ভুল করেছিলাম

Share this post

scroll to top
error: Content is protected !!