DMCA.com Protection Status
ADS

গণতন্ত্রের শেষ চিহ্নও মুছে ফেলতে চায় আওয়ামী লীগঃ দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া

khaleda_zia_photo_50950-e1405921609429বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সহ-আইন বিষয়ক সম্পাদক ও নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকারকে গ্রেপ্তারে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া।

সোমবার এক বিবৃতিতে তিনি বলেছেন, ‘প্রতিহিংসা চরিতার্থ করার রাজনীতিই হচ্ছে আওয়ামী সরকারের শাসনের মূল বৈশিষ্ট্য। দেশে এক ব্যক্তির খেয়াল খুশীর শাসন প্রতিষ্ঠা করতেই ৫ জানুয়ারির জনসমর্থনহীন নির্বাচনের পর অবৈধভাবে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা দখলকারীরা এখন একদলীয় শাসনকে পাকাপোক্ত করার জন্য নানামুখি অপকৌশল এঁটে যাচ্ছে। আর সেই অপকৌশলের অংশ হিসেবেই অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকারকে গ্রেপ্তার করা হলো।’

বেগম জিয়া বলেন, ‘রক্তপাতই যেন আওয়ামী লীগের দেশ শাসনের মূল এজেন্ডা হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই অবৈধ সরকার তার সর্বগ্রাসী ক্ষুধা মেটানোর জন্য গণতন্ত্রের শেষ চিহ্নটুকুকে মুছে ফেলে দিতে চাচ্ছে। আর এজন্যই মানুষের বাকস্বাধীনতাকে রুদ্ধ করার জন্য জাতীয় সম্প্রচার নীতিমালা প্রণয়ন করেছে। অত্যাচারী সরকারের বিরুদ্ধে কেউ যাতে মাথাচাড়া দিতে না পারে সেজন্য বিচার বিভাগের ক্ষমতা খর্ব করতে বিচারকদের অভিশংসন করার ক্ষমতা জাতীয় সংসদের ওপর ন্যস্ত করা হচ্ছে।’

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া অবিলম্বে অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকারের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করে নিঃশর্ত মুক্তির জোর দাবি জানিয়েছেন।

Share this post

scroll to top
error: Content is protected !!