DMCA.com Protection Status
ADS

গুমখুন সরকার পতনের প্রতিধ্বনিঃআ স ম আব্দুর রব

image_89357_0 নারায়ণগঞ্জে হত্যা ৭টি হয়নি, হয়েছে ৭ কোটি এমন মন্তব্য করে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) সভাপতি আসম আব্দুর রব প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে বলেছেন, ‘গুমখুন সরকার পতনের প্রতিধ্বনি। এ গুমখুনের দায় প্রধানমন্ত্রী অপনাকে, আপনার আওয়ামী লীগকে নিতে হবে।’



শনিবার বিকেলে‘শ্রমজীবী-কর্মজীবী-পেশাজীবী এক হও’স্লোগানে গুম-খুন-অপহরণ বন্ধের দাবিতে নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে জেএসডির উদ্যোগে প্রতিবাদ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।  



সাবেক মন্ত্রী আসম রব বলেন, ‘সব জায়গায় ছাত্রলীগ, আওয়ামী যুবলীগ ও দলের লোকজন গুম খুন অপহরণ করলেও প্রধানমন্ত্রী বলছেন-বিরোধীদল গুম-খুন-অপহরণ করছে।’



তিনি প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে বলেন, ‘আমাদের দেশে পাখি মারা নিষেধ। ৭টি পাখি মারাও নিষেধ। আর নারায়ণগঞ্জে ৭টি হত্যা হয়ে গেছে। নারায়ণগঞ্জের মানুষ বলে দিচ্ছে কারা খুনি আর আপনি বলছেন বিরোধীদল করছে। আপনি খুনীদের প্রটেকশন দিচ্ছেন। আপনার সরকারে খুনী আছে। ১টি ফুলকে বাঁচাতে দেশ স্বাধীন করে ৭টি ফুল খুন করলাম।’



প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদেশে তিনি আরও বলেন, ‘যাদের দিয়ে ভোট ডাকাতি করিয়েছেন, তাদের দিয়ে প্রশাসন চালাতে পারবেন না। এ প্রশাসন দিয়ে বাংলাদেশের মানুষকে গণতন্ত্র দেয়া সম্ভব নয়। স্বাধীনতা ভুলুন্ঠিত হয়েছে। আপনার সিংহাসন পুড়ে যাবে, উড়ে যাবে, জ্বলে যাবে, থাকবে না। আপনি, আপনার সরকার ব্যর্থ।’



জেএসডি জেলা সভাপতি অ্যাডভোকেট মো. খলিলুর রহামনের সভাপতিত্বে প্রধান বক্তা হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র সহ সভাপতি ও সাবেক এমপি এমএ গুফরান, সধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেক রতন, নাগরিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান, নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও দৈনিক খবরের পাতার সম্পাদক মাহাবুবু রহমান মাসুম, জেলা সিপিবির সভাপতি হাফিজুল ইসলাম, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের জেলার সভাপতি শফিকুল ইসলাম দেলোয়ার।



আসম আব্দুর রব বলেন, ‘বিশ্বের সব মানুষের ধারণা নারায়ণগঞ্জ মৃত্যুর উপত্যকা। আমরা এখনো মরি নাই প্রতিবাদ করবো গুম-খুন, হত্যার, অপহরণের। দলীয় শাসনের, সরকারের বিরুদ্ধে কথা বলা যাবে না, এটা হলো ভোটবিহীন নির্বাচনের সার্থকতা।’  



তিনি আরো বলেন, ‘স্বাধীনতা যুদ্ধে অস্ত্র ধরেছিলাম বাংলাদেশ স্বাধীন করার জন্য। প্রয়োজনে বাংলাদেশে আরেকটি রাজনৈতিক যুদ্ধ হয়ে যাবে। সব রাজনেতিক দলকে দলমত ভুলে গিয়ে ঐক্যবদ্ধ হয়ে মুক্তিযুদ্ধের মতো এ সরকারের পতন ঘটাতে হবে। ৭ লাশের পরেও পদত্যাগ করবেন না । আমরা জানি কিভাবে পদত্যাগ করাতে হয়।’

 


জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেক রতন বলেন, ‘ত্বকী হত্যা বাংলাদেশ কাঁপিয়ে তুলেছিল। এ হত্যায় জড়িতরা ধরা পড়ে নি, বিচার হয়নি। এরপর বিচার না হওয়াটাই স্বাভাবিক। যারা গ্রেপ্তার করে নি, তারাই এ হত্যা খুনের ইণ্ধনদাতা।’

Share this post

scroll to top
error: Content is protected !!