DMCA.com Protection Status
ADS

অবশেষে পুলিশের কাছে ধরা দিলেন ভারতের সাহারা গ্রুপের প্রধান সুব্রত রায়ঃ

Subrata-Royসুপ্রিম কোর্টের গ্রেফতারি পরোয়ানা কার্যকর করতে বাড়িতে পুলিশি অভিযানের পর অবশেষে লক্ষ্নৌ পুলিশের কাছে ধরা দিলেন ভারতের সাহারা শিল্পগোষ্টির কর্ণধার সুব্রত রায়। পুলিশের কাছে ধরা দেয়ার পর তাকে গ্রেফতার করা হয়। আগামী ৪ মার্চ পর্যন্ত পুলিশি হেফাজতে থাকবেন তিনি।
এর আগে সুপ্রিমকোর্টে তার জামিন অযোগ্য গ্রেফতারি পরোয়ানার বিরুদ্ধে আবেদন করেন সাহারার প্রধান। তিনি আদালতে হাজিরা দিতে ব্যর্থতার জন্য সুপ্রিমকোর্টের কাছে নিঃশর্থ ক্ষমা প্রার্থনা করে তার জামিন অযোগ্য গ্রেফতারির পরোয়ানার বিষয়টি আরও একবার ভেবে দেখার আবেদন করেন। কিন্তু সুপ্রিম কোর্ট তার সেই আবেদন খারিজ করে দেয়। ফলে গ্রেফতার এড়ানোর আর কোনো পথ খোলা ছিল না।


উল্লেখ্য, গত বুধবার সুব্রত রায়ের বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে সুপ্রিম কোর্ট। বন্ড স্কিমের আওতায় বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে নেওয়া প্রায় ২০ হাজার কোটি রুপি ফেরত দিতে ব্যর্থ হওয়ায় ২০১২ সালে সাহারা গ্রুপের বিরুদ্ধে মামলা করেছিল ভারতের শেয়ার বাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা। সেই অর্থ ফেরত দেওয়ার জন্য সুব্রত রায়ের দুটি কোম্পানিকে নির্দেশ দিয়েছিল আদালত। বুধবার সেই মামলায় সুপ্রিম কোর্টে হাজিরা দেওয়ার কথা ছিল সাহারা প্রধানের। কিন্তু তিনি মায়ের অসুস্থতার কথা বলে হাজিরা দিতে ব্যর্থ হন। ফলে সুপ্রিম কোর্ট তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে। পরোয়ানা জারির পর থেকেই 'অজ্ঞাত' স্থানে ছিলেন সাহারা ইন্ডিয়া গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা ও ভারতের অন্যতম এই ধনকুবের (ভারতের পঞ্চম ধনী)। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে বলা হয় আগামী ৪ মার্চ দুপুর ২ টার মধ্যে সুব্রতকে আদালতে হাজির করতে হবে।
এদিকে, সুব্রতর ছেলে সীমান্ত রায় এক বিবৃতিতে বলেছেন, আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল একজন নাগরিক হিসাবে তার বাবা পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেছেন। কর্তৃপক্ষকে সব বিষয়েই সহযোগিতা করছেন তিনি। আদালত যে নির্দেশ দেবে, তা নিঃশর্তভাবে মেনে চলতেও তিনি প্রস্তুত।
১৯৭৮ সালে 'সাহারা ইন্ডিয়া পরিবার' প্রতিষ্ঠা করেন সুব্রত রায় সাহারা। মহারাষ্ট্রে অ্যাম্বি ভ্যালি নামের আবাসন প্রকল্প গড়ে তুলে বিপুল সুনাম অর্জন করে সাহারা। তবে আবাসন প্রকল্প দিয়ে শুরু হলেও এখন অর্থনৈতিক, সেবা, জীবন বীমা, মিউচুয়াল ফান্ড, আবাসিক খাতে অর্থ যোগান, অবকাঠামো, সংবাদপত্র, টেলিভিশন, বিনোদন, চলচ্চিত্র প্রযোজনা, স্বাস্থ্যসেবা, পণ্য উত্পাদন, ক্রীড়া এবং তথ্য প্রযুক্তি খাতে সাহারা গ্রুপের ব্যবসা ছড়িয়ে আছে।

 

 

Share this post

scroll to top
error: Content is protected !!