DMCA.com Protection Status
ADS

বিএনপি আজ খন্দকার দেলোয়ারের তীব্র অভাব অনুভব করছেঃ মির্জা ফখরুল

ক্যাপ্টেন(অবঃ)মারুফ রাজুঃ বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল,বিএনপির সাবেক মহাসচিব খন্দকার দেলোয়ার হোসেন ছিলেন দল ও জিয়া পরিবারের প্রতি একনিষ্ট একজন সংগ্রামী নেতা এবং দলের চরম দুঃসময়ের কান্ডারী। বিএনপি আজ খন্দকার দেলোয়ারের তীব্র অভাব অনুভব করছে, আজ বুধবার দুপুরে বিএনপির সাবেক মহাসচিব বর্ষীয়ান প্রয়াত নেতা খোন্দকার দেলোয়ার হোসেনের জন্মস্থান মানিকগঞ্জে তার স্মরণসভায় যোগ দিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘নিত্যপণ্যের বাজারে আগুন, সরকার নিয়ন্ত্রণ করতেই পারে না। এই সরকারের নিয়ন্ত্রণ করবার কোনো ক্ষমতা নেই। কারণ সরকারই এই দ্রব্যমূল্যের দাম বৃদ্ধি করেছে। ব্যবসায়ী সিন্ডিকেটের সঙ্গে এই সরকারের মন্ত্রী, এমপি নয়তো দলের লোক জড়িত। এই সরকার বাংলাদেশের সমস্ত সম্ভাবনাকে ধ্বংস করে দিয়েছে। বাংলাদেশের মানুষকে একটা ভয়াবহ অবস্থার দিকে ঠেলে দিচ্ছে। সরকারের এই ব্যর্থতার ফল ভোগ করছে সাধারণ মানুষ।

ফখরুল বলেন, সরকারদলীয় নেতাকর্মীদের দুর্নীতি সর্বমহলে ক্যান্সারের মতো ছড়িয়ে পড়েছে। এত বড় দুর্নীতি আমরা আগে কখনো দেখিনি। অর্থাৎ পরিকল্পিতভাবে এই সরকার এই দেশকে দুর্নীতির স্বর্গরাজ্যে পরিণত করেছে। সাধারণ মানুষের কথা তারা চিন্তাও করে না। তাদের কথাবার্তা শুনলে মনে হবে না এই দেশের জনগণের প্রতি তাদের ভালোবাসা আছে।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের অধীনে কোনো নির্বাচন কমিশন দিয়ে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব না। তাই আমাদের দাবি, নির্বাচনকালীন সময়ে অবশ্যই তারা পদত্যাগ করে একটা নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের কাছে নির্বাচন পরিচালনার দায়িত্ব দিয়ে জবাবদিহিমূলক পার্লামেন্ট গঠন করতে হবে।

নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকার ছাড়া আগামীতে কোনো নির্বাচন হতে দেওয়া হবে না উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘ভোটারবিহীন সরকারকে অনেক সুযোগ দেওয়া হয়েছে। আগামী নির্বাচনে আর কোনো সুযোগ দেওয়া হবে না। জনগণের বাঁধ ভেঙে গেছে, জনগণই প্রতিরোধ গড়ে তুলবে। জনগণের সরকার করতে হলে নির্বাচনকালীন একটা নিরপেক্ষ সরকার লাগবে। আওয়ামী লীগের অধীনে এটা হবে না।’

নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে সোচ্চার হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ভোটাধিকার ফিরিয়ে আনার দাবিতে আন্দোলনের বিকল্প নেই।

এ সময় মানিকগঞ্জ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এসএ জিন্নাহ কবির, জেলা বিএনপির সহসভাপতি ড. খোন্দকার আকবর হোসেন বাবলু, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আ ফ ম নূরতাজ আলম বাহার, খোন্দকার আব্দুল হামিদ ডাবলু, গোলাম আবেদীন কায়সার, রফিক উদ্দিন ভূঁইয়া হাবুসহ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

Share this post

scroll to top
error: Content is protected !!